১৬ অক্টোবর ২০১৯

সিভিল সার্জনের বাড়িতে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে ৫৬ জন হাসপাতালে

বিয়ের দাওয়াত খেয়ে ৫৬ জন হাসপাতালে ভর্তি - ছবি : নয়া দিগন্ত

সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জনের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত খেয়ে অসুস্থ হয়ে ৫৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এই রোগীরা ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে রাতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার রাতে সদর উপজেলার মোল্লা পাড়া ইউনিয়নের সাদকপুর গ্রামে সুনামগঞ্জের বর্তমান সিভিল সার্জন ডা: আশুতোষ দাসের বড় ভাই মৃত প্রানেশ দাসের মেয়ের বিয়ের দাওয়াতি অনুষ্ঠানে খাবার খেয়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রানেশ দাসের মেয়েকে দিরাই উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নের ডাইয়ারগাঁও গ্রামের মহেন্দ্র কুমার দাসের ছেলে মিহির দাসের সাথে বিয়ে দিয়েছেন।

অসুস্থরা সবাই বর-কনে উভয় পরিবারের আত্মীয়-স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশী বলে জানা যায়। বর পক্ষের লোকজনকে দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া কনেপক্ষের রোগীরা জানান, বুধবার রাতে বিয়ের খাবার খাওয়ার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে অনেকেরই পেটে ব্যথা অনুভব করেন। অনেকেই আবার পাতলা পায়খানায়, বমিসহ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হন। এ ভাবে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত একে একে হাসপাতালে ৪২ জন রোগী সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। খাবার খেয়ে অসুস্থ সবাইকে হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

কনের মা চন্দা রানী দাসের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় থাকে রাতেই ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, বরপক্ষের ১৪ জন দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা: আশুতোষ দাস বলেন, গরম এবং ফুড পয়জনিং থেকে এমন সমস্যা হয়েছে, সবাইকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum