২৪ জুলাই ২০১৯

কুলাউড়া সীমান্ত দিয়ে শিশু পাচার : ভারত থেকে মুক্তিপণ দাবি

-

কুলাউড়ায় আলীনগর সীমান্ত দিয়ে নয় বছরের এক শিশুকে শিরনী খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচার করেছে চোরাকারবারীচক্র। আর ভারত থেকে শিশুটির পরিবারের কাছে চাওয়া হয়েছে মোটা অংকের মুক্তিপণ।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) মধ্যে আলীনগর সীমান্তে পতাকা বৈঠক হয়েছে মঙ্গলবার। ওই ঘটনার সাথে ভারতের চার নাগরিক জড়িত রয়েছেন বলে জানিয়েছে বিজিবি ও পুলিশ।

এলাকাবাসী ও বিজিবি সূত্রে জানা যায়, সোমবার শিরনী খাওয়ার কথা বলে শিকড়িয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে নয় বছর বয়সী তামিম আহমদকে বাড়ির থেকে নিয়ে যায় একই গ্রামের চোরকারবারি মছব্বির আলীর ছেলে মইনুল, আব্দুল মন্নানের ছেলে সাজু, মৃত মনির মিয়ার ছেলে শফিক, মৃত রফিক মিয়ার ছেলে ফরমান। পরে ভারতীয় নাগরিক আহমদ, আব্দুল, আবুল, তৌর মিয়ার সহযোগিতায় কাঁটাতারের বেড়ার উপর দিয়ে ভারতে নেয়া হয়। পরে ভারত থেকে ফোন দিয়ে ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছে আব্দুল নামের এক ভারতীয় নাগরিক।

এ ঘটনার পর শিশুটির মায়ের অবস্থা আশংকাজনক।

কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, নয় বছরের এক শিশুকে চার যুবক মিলে ভারতে পাঠানোর খবর পেয়ে কুলাউড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এসময় ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত মছব্বির আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ইতিমধ্যে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক হয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল ৪৬ বিজিবি কামান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল হক জানান, ঘটনাকারীরা চোরাকারবারী দলের সক্রিয় সদস্য। চোরাকারবারদের মধ্যে টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। আমরা বিএসএফকে সব তথ্য দিয়েছি।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi