১৮ আগস্ট ২০১৯

নিজের সন্তানকে হত্যাকারী ঘাতক পিতা আটক

প্রতীকী ছবি - সংগৃহীত

জৈন্তাপুরের ফিসারী হতে উদ্ধারকৃত শিশুর লাশের পরিচয় সনাক্তের পর ঘাতক পিতাকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ। আটককৃতক ঘাতক পিতার নাম দেলোয়ার। আটকের পর তাকে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।

গত ১৯ এপ্রিল জৈন্তাপুর ফিসারী হতে শিশু উদ্ধারের পর ২০ এপ্রিল শিশুর মায়ের দায়ের করা মামলায় জৈন্তাপুর মডেল থানার এসআই মোঃ আজিজুর রহমান লক্ষীপুর জেলা থেকে ঘাতক পিতা দেলোয়ার হোসেনকে আটক করে। আটককৃত দেলোয়ারকে রাতেই সিলেটের জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নিজের শিশু হত্যার দায় স্বীকার করায় রোববার দুপুর ১২টায় বিশেষ নিরাপত্তায় তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৯ এপ্রিল শুক্রবার জৈন্তাপুর উপজেলা ফতেপুর ইউনিয়নের আওতাধীন সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাখিটিখি এলাকার ফিসারী হতে পুলিশ অজ্ঞাত এক শিশুর (ছেলে) লাশ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত শিশুর ছবি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর বেরিয়ে আসে শিশুটির প্রকৃত পরিচয়। সংবাদ পেয়ে শিশুটির মা বিলকিছ বেগম সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে গিয়ে উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে নিজের সন্তান বলে সনাক্ত করেন।

পরে ২০ এপ্রিল জৈন্তাপুর মডেল থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে শিশু হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন তিনি। মামলা দায়ের করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ঘাতক পিতাকে তার গ্রামের বাড়ী শাকচর হতে আটক করা হয়।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার ওসি খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ঘাতক পিতাকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজের ১১মাস বয়সী সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করায় ১৬৪ধারায় আসামীর বক্তব্য রেকর্ডের জন্য বিজ্ঞ আদালতে হাজির করা হয়েছে।

দেখুন:

আরো সংবাদ




bedava internet