২১ মে ২০১৯

জামালগঞ্জ থানার আলোচিত ওসি আবুল হাশেম ক্লোজড

পুলিশ
প্রতিবন্ধী তারা মিয়ার বিরুদ্ধে পুলিশের ওপর আক্রমণের অভিযোগ এনে সমালোচিত হয়েছিলেন ওসি আবুল হাসেম - ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে পাঁচ লাখ টাকার ঘুষ দাবির অভিযোগ মাথায় নিয়ে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানার আলোচিত সেই ওসি মো: আবুল হাসেমকে সরে যেতে হয়েছে। জনস্বার্থে তাকে ক্লোজড (বদলি) করা হয়েছে।

বুধবার রাতে নবাগত ওসি মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে দায়িত্বভার বুঝিয়ে দিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি জামালগঞ্জ ত্যাগ করে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনে যোগদান করেন।

জামালগঞ্জ থানার ওসি আবুল হাসেমের বদলির বিষয়টি নিশ্চিত করে সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মো: বরকতুল্লাহ খান বলেন, জনস্বার্থে আবুল হাসেমকে বদলি করে আপাতত সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ওসি হিসেবে মো: আবুল হাসেম সুনামঞ্জের জামালগঞ্জ থানায় দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের তারিখ ছিল ১০ মার্চ। ভোট গ্রহণের অনুকূল পরিবেশ না থাকায় ৮ মার্চ নির্বাচন কমিশন থেকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তাকে চিঠি দিয়ে ওই উপজেলায় ভোট গ্রহণ স্থগিত করেন।

প্রধম ধাপে স্থগিত হওয়া জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত (নৌকা) প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইউসুফ আল আজাদ নির্বাচন ১২ মার্চ কমিশনে জামালগঞ্জ থানার ওসি আবুল হাসেমের বিরুদ্ধে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ দাবির লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তদন্ত করে পরবর্তীতে তদন্ত রিপোর্ট ইসিতে পাঠান।

এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে ২০১৮ সালের ২৮ ডিসেম্বর ষড়যন্ত্র ও হত্যার উদ্দেশ্যে রামদা, হকিস্টিক, লাঠিসোটা, বাঁশ, রড ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার অভিযোগ এনে বিশেষ ক্ষমতা আইনে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় জামালগঞ্জ থানার ভীমখালী ইউনিয়নের মল্লিকপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী তারা মিয়াসহ ৬০ থেকে ৭০ জনকে আসামি করা হয়।

ওই মামলায় প্রতিবন্ধীকে আসামি করার পরই ওসি আবুল হাশেম উপজেলা জুড়ে কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েন। গত ২২ জানুয়ারি ওই মামলায় প্রতিবন্ধী তারা মিয়া জামিন নিতে হাইকোর্টে যান। পরবর্তীতে জামিন শুনানিতে অসুস্থ প্রতিবন্ধী তারা মিয়ার ছবিসহ দেশের একটি শীর্ষ ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতের সামনে তুলে ধরা হয়। প্রতিবন্ধী একজন মানুষ তারা মিয়া। ডান হাত একেবারেই নাড়াতে পারেন না তিনি। তিনিই নাকি সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে নির্বাচনের দুই দিন আগে হকিস্টিক, রড নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছেন। পুলিশের মামলায় সেই সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থেকে ঢাকায় গিয়েছিলেন হাইকোর্টে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করতে প্রতিবন্ধী তারা মিয়া।

তারা মিয়ার ছবিসহ প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে সারা দেশে একাদশ নির্বাচনকে ঘিরে পুলিশের গায়েবি মামলা নিয়ে ফের নানামুখী সমালোচনা শুরু হয়। ওই মামলায় একজন প্রতিবন্ধী মানুষকে আসামি করায় ওসি আবুল হাশেম সারা দেশে বিতর্কিত হন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে নৌকার প্রার্থীর সাথে মনোনয়ন জমা দেয়ার বিষয়েও ওসি আবুল হাশেমের ছবিসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি ভাইরাল হলে সে সময়েও তিনি বেশ সমালোচিত হন।


আরো সংবাদ




agario agario - agario