১৭ জুন ২০১৯

মনোনয়ন না পাওয়া বিএনপির আনিসুল হক বললেন- ব্যক্তি নয় মার্কাই বড়

-

সুনামগঞ্জ-১ আসনের ত্যাগী নেতা হিসাবে পরিচিত আনিসুল হক বলেন, আমি মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছি। কিন্তু কিছুই করার নেই। দলের স্বার্থে আপনারা মনে দুঃখ রাখবেন না। ব্যক্তি নয়, মার্কাই বড়। আর জয়ই আমাদের লক্ষ্য। দল বাচাঁতে হবে তাই আপনারা সবাই ধানের শীষের প্রতীকে পক্ষে কাজ করুন। আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং তারেক রহমানকে এদেশে আনার জন্য বিএনপিকে বিজয়ী করতে হবে। শহীদ জিয়ার আর্দশ বাস্তবায়িত করতে হবে।

সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সাবেক তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনিসুল হক শনিবার বিকালে তাহিরপুর উপজেলা দলীয় কার্যালয়ে ঢাকা থেকে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে পৌঁছালেই নেতাকর্মীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। এসময় এক হৃদয়বিধারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। এসময় আসিনুল হক নেতাকর্মীদের এসব কথা বলে সান্ত¡না দেন।

তিনি আরো বলেন, আমি দলের জন্য আপনাদের জন্য কাজ করেছি। দলের স্বার্থে সকল কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছি আপনাদের সাথে নিয়ে। দলে শীর্ষ নেতৃবৃন্দের নির্দেশ আমাকে মানবে হবে, মানতে হবে আপনাদেরকেও। আমি আপনাদের পাশে সুখে-দুঃখে ছিলাম, আছি, আর সব সময় থাকব। আপনারা নিরাশ হবেন না।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন, তাহিরপুর উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও তাহিরপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বুরহান উদ্দিন, সহ-সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন অর রশিদ, নজরুল ইসলাম শাহ্, বশির আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক (স্থগিত কমিটি) জুনাব আলী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মহিবুর রহমান, শিল্পবিষয়ক সম্পাদক নজরুল শিকদার, উপজেলা কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক লুতফুর রহমান প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক মিয়া, উত্তর বড়দল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক দুলাল মিয়া, উত্তর বড়দল ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক আক্তার হোসেন, উত্তর বড়দল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক দুলাল মিয়া, তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি আবুল কালাম, ছাত্রদল নেতা আল-আমিন, শাহিন আলম, অপুসহ উপজেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র-জুনিয়র নেতৃবৃন্দ।


আরো সংবাদ