১৩ নভেম্বর ২০১৮

সতীনকে হত্যার দায়ে মা-মেয়ে আটক

-

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় মোবাইল ফোনে কথা কাটাকাটির জের ধরে সতীন কর্তৃক অপর সতীনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম মনোয়ারা বেগম। তিনি উপজেলার পাইকরাজ গ্রামের আব্দুল মতিনের দ্বিতীয় স্ত্রী। গত বুধবার রাতে আব্দুল মতিনের বসত বাড়িতে হত্যাকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতের সতীন আব্দুল মতিনের প্রথম স্ত্রী সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আব্দুল মতিন তার দুই স্ত্রী সাহেনা ও মনোয়ারাকে নিয়ে একই বাড়িতে বসবাস করতেন। গত বুধবার রাতে মোবাইল ফোনে কথাকাটাকাটির জের ধরে দুই সতীন সাহেনা ও মনোয়ারার মাঝে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। এরই এক পর্যায়ে সাহেনা বেগম ও তার মেয়ে সুলতানা মিলে মনোয়ারার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এ সময় প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে মনোয়ারাকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল জলিল মনোয়ারা বেগমকে হত্যায় জড়িত সন্দেহে সতীন সাহেনা ও তার মেয়ে সুলতানাকে আটকের বিষয়ে নিশ্চিত করে

তিনি বলেন, নিহতের মরদেহ এখনও হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। মামলা দায়ের করা হলে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ

১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করতে চান ড. কামাল আস্থা রাখুন, হিন্দু সম্প্রদায়কে ফখরুল ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আগের চেয়ে বেশি দমনমূলক : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল আ’লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হলেন ফারুক খান ও আব্দুর রাজ্জাক সহকর্মীর আঘাতে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরির কর্মচারী নিহত শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুর জামিন স্থগিত শিশুশ্রম নির্মূলের ল্যমাত্রা অর্জনে দেশ যথেষ্ট পিছিয়ে নির্বাচনী তফসিল পুনর্নির্ধারণ জাপা ইতিবাচকভাবেই দেখছে : জি এম কাদের ৩২ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে খেলাফত আন্দোলন অভিভাবক ঐক্য ফোরাম চেয়ারম্যানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

সকল