১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সিলেট বিএনপির প্রতীকী অনশনে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবী

-

কেন্দ্রীয় কর্মসুচীর অংশ হিসেবে বুধবার বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত প্রতীকী অনশনে বক্তারা বলেছেন, অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে তিন বারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিচারের নামে অবিচার চালিয়ে অন্যায়ভাবে কারাগারে আটকে রেখেছে। গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রীকে শুধু তারা কারাগারে আটকে রেখেই ক্ষান্ত হয়নি, বিনা চিকিৎসায় তাকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে। যা আইন ও মানবাধিকারের সুষ্পষ্ট লংঘন। এর পরিণতি সরকারেরর জন্য সুখকর হবেনা। আইন ও মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। দেশনেত্রীকে কারাগারে রেখে দেশে কোন নির্বাচন হতে দেয়া হবেনা।
সিলেট নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত প্রতীকী অনশন কর্মসুচী সকাল ১১টায় শুরু হয়ে বেলা ১টায় সমাপ্ত হয়। পেশাজীবি পরিষদ সিলেটের সভাপতি বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ শামীমুর রহমান পানি পান করিয়ে নেতা-কর্মীদের অনশন ভাঙ্গান। বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে অনশনে বিএনপি অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীমের সভাপতিত্বে ও মহানগর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতীকী অনশন চলাকালে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, মহানগর সভাপতি নাসিম হোসাইন, জেলা ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির শাহীন, কাউন্সিলার ফরহাদ চৌধুরী শামীম, কাউন্সিলার রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, জেলা সহ-সভাপতি একেএম তারেক কালাম, জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, ওসমান গণি, মহানগর সহ-সভাপতি মুফতি বদরুন নুর সায়েক প্রমুখ।


আরো সংবাদ