২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সিলেটে শিক্ষার্থীদের সংবাদ সম্মেলন

-

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত গ্রন্থাগার ও তথ্যবিজ্ঞান ডিপ্লোমা কোর্স ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা দ্রুত গ্রহণের দাবি জানিয়েছে গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞান ডিপ্লোমা শিক্ষার্থী অধিকার পরিষদ সিলেট। রোববার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পরিষদের আহবায়ক আবুল হোসেন।
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে দেশের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো সিলেটেও শিক্ষার্থীরা একটি স্বপ্নময় জীবনের সুন্দর অবলম্বনের হাতিয়ার হিসেবে গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞান ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি হন। কিন্তু দূর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের ফাইনাল পরীক্ষা এখন পর্যন্ত সম্পন্ন হয়নি। এ প্রসঙ্গে তারা বলেন, গত ২৪ এপ্রিল পরীক্ষা হওয়ার নিমিত্তে শিক্ষার্থীদেরকে প্রবেশপত্র সহ যাবতীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু হঠাৎ করে ২৩ এপ্রিল উচ্চ আদালতের নির্দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা এক মাসের জন্য স্থগিত করেন। খোঁজ নিয়ে শিক্ষার্থীরা স্থগিতাদেশের কারণ হিসেবে জানতে পারেন বগুড়ায় অবস্থিত একটি প্রতিষ্ঠানের রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই স্থগিতাদেশ দেয়া হয়। বগুড়ার ওই প্রতিষ্ঠানের গ্রন্থাগার ও তথ্যবিজ্ঞান কোর্সে ভর্তিকৃত কিছু শিক্ষার্থীদের ভর্তি সংশ্লিষ্ট কিছু বিষয় নিয়ে জটিলতা ছিল। মাত্র একমাসের জন্য বিশবিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষাটি স্থগিত করলেও এখন পর্যন্ত পরীক্ষাটি নেয়া হচেছ না।
সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, পরীক্ষা গ্রহণে সুনির্দিষ্ট কোন নির্দেশ না আসায় হাজার হাজার শিক্ষার্থীরা হতাশ এবং মানসিক দিক দিয়ে ভেঙে পড়েছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে শিক্ষার্থীরা অনেক কষ্ট স্বীকার করে এই কোর্সে ভর্তি হলেও দেখা যায় যে, নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় অনেকের চাকরির বয়স পেরিয়ে যায়। তারা বলেন, ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের এক বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্সটি সম্পন্নের সময়সীমা জুলাই ২০১৭ তে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এ ব্যাপারে কোন বিহীত ব্যবস্থা নিতে পারেনি। সংবাদ সম্মেলনে পরিষদ নেতৃবৃন্দ শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ ও দ্রুত কোর্স সম্পন্নের কথা বিবেচনায় নিয়ে গ্রন্থাগার ও তথ্যবিজ্ঞান ডিপ্লোমা ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা অবিলম্বে সম্পন্নের জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি জোর দাবি জানান। সংকট উত্তরণে তারা প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য সচিব তানিম হাসান, যুগ্ম আহবায়ক শাহাব উদ্দিন ও ওমর ফারুক, সদস্য মাসুদ আলম, নাজমুন নাহার, সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme