২৬ জানুয়ারি ২০২০

মমতার বিপক্ষে গেলেন দেব-নুসরাত-মিমি!

তেলেঙ্গানার এনকাউন্টার বিষয়ে মমতার সাথে একমত নন দেব-নুসরাত-মিমি - ছবি : সংগৃহীত

কেউ পুলিশকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। কেউ বা বলেছেন, আজ উৎসবের দিন। কারো মতে, শান্তি পাবে নির্যাতিতার আত্মা। তেলঙ্গানা এনকাউন্টার-কাণ্ডে তৃণমূল-প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পূর্ণ উল্টো সুর শোনা গেল তারই দলের সাংসদের একাংশের গলায়। মমতা বিচার ব্যবস্থার উপর আস্থা রাখার কথা বললেও এ নিয়ে পুরোপুরি ভিন্ন মত অভিনয় থেকে রাজনীতিবিদ হওয়া দেব, নুসরাত ও মিমির।

শুক্রবার ভোররাতে তেলঙ্গানায় পুলিশি এনকাউন্টারে নিহত হন তেলেঙ্গানায় তরুণী পশু চিকিৎসককে গণধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্ত চারজন। ঘটনার পরই প্রশংসার পাশাপাশি নিন্দা-সমালোচনার নানা মত দিতে থাকেন অনেকে। এ নিয়ে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এ দিন দুপুরে মেয়ো রোডে একটি সভায় আইনের শাসন তথা বিচার ব্যবস্থার প্রতি আস্থা রাখার কথা বলেন মমতা। তবে ওই সভায় মমতার মন্তব্যের আগে এবং পরেও দেখা যায়, এ বিষয়ে তৃণমূল নেত্রীর সাথে সহমত নন তারই দলীয় সাংসদের একাংশ।

তেলঙ্গানা এনকাউন্টার প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ‘আইন নিজের হাতে তুলে নেয়াটা আইন নয়। আইন এটাই যে, পুলিশ তার কাজ করবে। অভিযুক্তদের আদালতে পেশ করবে। বিচারক তার কাজ করবেন।’

ওই মন্তব্যের পাশাপাশি তেলেঙ্গানা গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় ১০ দিনের মধ্যে চার্জশিট পেশের দাবিও তোলেন তিনি।

মমতার সভার আগে অবশ্য ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ দেবের গলায় একেবারে অন্য সুর শোনা গিয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ টুইটারে হায়দরাবাদ পুলিশকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি লেখেন, ‘এর প্রয়োজন ছিল।’

এর কিছুক্ষণ পরেই দেখা যায় নুসরাত জাহানের টুইট। তাতেও দেবের মতের সাথে বেশ মিল খুঁজে পাওয়া যায়। নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে নিজেকে মানবতাবাদী বলে আখ্যা দিলেও সুবিচারের জন্য আইন নিজের হাতে তুলে নেয়ার পক্ষেই সওয়াল করেন নুসরত। বসিরহাট কেন্দ্রে সাংসদের টুইট, ‘অবশেষে... সুবিচারের জন্য বিচার / আইন ব্যবস্থার কারুর ব্যাটন তুলে নেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। আর্তি শোনা হয়েছে... অপরাধীদের আর অস্তিত্ব নেই।’

দেব বা নুসরাতের মন্তব্য শোনা গিয়েছিল মমতার সভার আগে। তবে এনকাউন্টার নিয়ে তৃণমূল নেত্রীর মন্তব্যের পরেও মমতার সাথে সহমত হতে দেখা যায়নি যাদবপুর কেন্দ্রের সাংসদ মিমি চক্রবর্তীকে। তেলঙ্গানা পুলিশকে বাহবা দিয়ে নির্যাতিতার উদ্দেশে মিমির টুইট, ‘এ বার তোমার আত্মা শান্তি পাবে।’ তবে এই মত প্রকাশের আগে মমতার বক্তব্য তার শোনা হয়েছিল কি না, তা অবশ্য জানা যায়নি।

এখানেই থেমে থাকেননি মিমি। এর পর সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর একটি ভিডিও রি-টুইট করেছেন তিনি। তাতে দেখা গিয়েছে, ঘটনাস্থলে পুলিশকর্মীদের ঘিরে জনতার উল্লাস।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা


আরো সংবাদ

মিসর সফরে গেছেন বিমান বাহিনী প্রধান বাংলাদেশী হত্যা করে ভারত লাশ ফেরত দেয় না, অথচ নেপালে একই কাজ করে ক্ষমা চায় : মেনন খেলাধুলার মাধ্যমে যোগ্য নাগরিক গড়ে তুলতে চাই : প্রধানমন্ত্রী এনআরসির প্রতিবাদে বিজেপি থেকে ৮০ মুসলিম নেতার পদত্যাগ বিসিএস ট্যাক্সেশন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল সম্পাদক কায়ছার মাসুদ বাউলের ইন্তেকাল টঙ্গীতে জাপা নেতার বাড়িতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ ইভিএম বুথে কেউ যেন জোর করে না ঢোকে : শাহ নেওয়াজ শত বাধা সত্ত্বেও শৃঙ্খলা না ভাঙার আহ্বান তাবিথের গাজীপুরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ৪ সীমান্ত হত্যা: ঢাবি ক্যাম্পাসে নিহতদের গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত

সকল

কোলে তুলে দেড়ঘণ্টা লাগাতার উদ্দাম নাচ, হিজড়াদের 'অত্যাচারে' নবজাতকের মৃত্যু (২৪০৫৮)এক ধাক্কায় বিজেপি ছাড়লেন ৮০ মুসলিম নেতা (৯৬৫৬)পাইলটকে দেখে নেয়ার হুমকি বিমানযাত্রীর (৯০৮৩)ইরাকের মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের হামলায় ৩৪ মার্কিন সেনা গুরুতর আহত (৭৯০৭)করোনা ভাইরাসে কেউটে-কালাচে আতঙ্ক (৬০৪২)বাংলাদেশকে যেমন নিরাপত্তা দিচ্ছে পাকিস্তান (৫৫৪৮)“স্বেচ্ছায় ইরাক থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়া উচিত ‘আহাম্মক’ ট্রাম্পের” (৫১৬০)‘মনে হচ্ছে যেন পৃথিবীর শেষ দিন’, ভাইরাস আতঙ্কে চীন (৪৮১৩)মোদি-অমিত শাহ’র দিন শেষ, বাতিল হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (৪৬২৩)‘এসকে সিনহাকে মাজায় দড়ি লাগিয়ে আনা হবে’ (৪১৪৫)