০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলেন নওয়াজ শরীফ

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ - সংগৃহীত

অবশেষে চিকিৎসার জন্য লন্ডনের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। মঙ্গলবার সকালে লাহোর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমানে কাতারের রাজধানী দোহার উদ্দেশে রওয়ানা হন তিনি। পরে দোহা থেকে লন্ডনের উদ্দেশে যাত্রা করবেন তিনি।

মঙ্গলবার সকালে লাহোর বিমানবন্দরের হজ টার্মিনাল থেকে পাকিস্তান ত্যাগ করেন পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) দলের প্রধান নওয়াজ শরীফ। বিমানবন্দরে প্রবেশের পথে দলের হাজার হাজার নেতাকর্মী রাস্তার দুই পাশে দাঁড়িয়ে নওয়াজকে অভিনন্দন জানান। এ সময় অনেককে নওয়াজ শরীফের সুস্বাস্থ্য কামনা করে প্রার্থনা করতে দেখা যায়।

এসময় পাকিস্তানের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ড. আদনান খান, দলের বর্তমান চেয়ারম্যান শাহবাজ শরীফসহ কয়েকজন দলীয় নেতা। কোনো শর্তছাড়াই ক্ষমতাসীন ইমরান খানের সরকার দেশত্যাগের নিষেধাজ্ঞা থেকে নওয়াজ শরীফের নাম বাদ দেয়ায় তিনি চিকিৎসার জন্য পাকিস্তান ত্যাগের অনুমতি পান।

এর আগে গত শনিবার লাহোর হাইকোর্ট সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে চিকিৎসার জন্য লন্ডন যাওয়ার অনুমতি দেন। চার সপ্তাহ সেখানে যাওয়ার অনুমতি দেয়া হলেও মেডিকেল পরীক্ষা-নিরীক্ষার রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে সময় নওয়াজের লন্ডনে অবস্থানের সময় বাড়ানো যাবে।

শনিবার পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) এর মুখপাত্র মরিয়ম আওরঙ্গজেব বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে এখনও উচ্চমাত্রায় স্টেরয়েড দেয়া হয়েছে, যাতে বিমানে সফরের সময় তার প্লেটলেটের মাত্রা সন্তোষজনক একটি অবস্থায় পৌঁছে। একই সঙ্গে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর নিরাপদ সফরের জন্য তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

পরে রোববার সকালে নওয়াজের ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. আদনান খান বলেন, নওয়াজকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে লন্ডনের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়ার শিডিউল রয়েছে। তিনি ক্লিনিক্যালি স্থিতিশীল অবস্থায় এলেই বিমানযোগে নিরাপদে সফরে যেতে পারবেন। এ সময় তার সঙ্গে থাকবে মেডিকেল স্টাফদের একটি টিম ও প্রয়োজনীয় সব সরঞ্জাম।

এদিকে নওয়াজকে বিদেশ যাওয়ার অনুমতি দেয়ার জন্য লাহোর হাইকোর্টের প্রশংসা করেছেন পিএমএলএন সভাপতি শাহবাজ শরীফ। তিনি বলেছেন, তার মা, জাতি ও সমর্থকদের প্রার্থনা আল্লাহ কবুল করেছেন। সূত্র : দ্য ডন, পাকিস্তান টুডে, নিউজউইক পাকিস্তান ও খালিজ টাইমস।


আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik