১৬ অক্টোবর ২০১৯

মোদির কাছে কাশ্মির দখলের ব্যাখ্যা চেয়েছে মার্কিন আদালত

কাশ্মির উপত্যকা দখল ও সেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে করা একটি মামলায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে জবাব দিতে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত।

হাউস্টন ক্রনিকল নামের একটি স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আসছে সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে টেক্সাস অঙ্গরাষ্ট্রের হাউস্টনে সমাবেশ করার আগ মূহুর্তে সেখানকার কয়েকজন কাশ্মিরী মামলা করেছে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে। কাশ্মিরে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অন্যান্য নির্যাতন নিয়ে মামলাটি করা হয়েছে।

পাকিস্তানের ডন অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, এই মামলায় ২১ দিনের মধ্যে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী ও তার সরকারের অন্যান্য সদস্যকে জবাব দিতে বলেছে আদালত। টেক্সাসের হাউসটনে মার্কিন জেলা আদালতে কাশ্মির খালিস্তান রেফারেন্ডাম ফ্রন্ট একটি অভিযোগ দাখিল করলে এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

আগামী ২২ সেপ্টেম্বর সেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে একটি যৌথ সমাবেশে ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

অভিযোগে ফ্রন্ট বলছে, গত ৫ আগস্ট মোদির সরকার কাশ্মির দখল করে নিয়েছে। আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ওই ভূখণ্ডকে মোদি সরকার ভারতের অন্তর্ভুক্ত করেছে। মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অবৈধ দখলদারিত্বের দায়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিহ শাহ ও কানওয়াল জিৎ সিংকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে এ মামলায়।

দীর্ঘ এবং নজিরবিহীন কারফিউ জারি, যোগাযোগ অচলাবস্থা, বাসিন্দাদের মৌলিক প্রয়োজন অস্বীকার, অবৈধ আটক, গুম, নির্যাতন ও বিচারবহির্ভূত হত্যার মাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum