১২ ডিসেম্বর ২০১৯

কাশ্মির নিয়ে চীন-পাকিস্তানের যৌথ অবস্থান : ভারতের প্রত্যাখ্যান

কাশ্মির নিয়ে চীন-পাকিস্তানের যৌথ অবস্থান : ভারতের প্রত্যাখ্যান - ছবি : সংগৃহীত

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই’র সাম্প্রতিক ইসলামাবাদ সফরের পর জম্মু ও কাশ্মির ইস্যুতে চীন-পাকিস্তানের দেয়া যৌথ বিবৃতি ভারত প্রত্যাখ্যান করেছে।
ভারতের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার বলেন, ‘চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাকিস্তান সফরের পর কাশ্মির ইস্যুতে চীন-পাকিস্তানের দেয়া যৌথ বিবৃতি আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। তিনি বলেন, জম্মু ও কাশ্মির ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ভারত দৃঢ়ভাবে চীন ও পাকিস্তানের তথাকথিত অর্থনৈতিক করিডোর প্রকল্পে উদ্বেগ প্রকাশ করছে।’
কাশ্মির ইস্যুতে মুখপাত্র আরো বলেন, পাকিস্তান ১৯৪৭ সাল থেকে অবৈধভাবে ভূখন্ডটি দখল করে রেখেছে।
তিনি আরো বলেন, ‘পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মিরের অবস্থানের পরিবর্তন ঘটে এমন যে কোন ধরনের পদক্ষেপের দৃঢ়ভাবে বিরোধিতা করছে ভারত। এ ধরনের পদক্ষেপ বন্ধে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর প্রতি তিনি আহ্বান জানান।’
চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ং ই পাকিস্তান ও চীনের মধ্যকার সম্পর্ককে ‘অত্যন্ত দৃঢ় ও অবিচ্ছেদ্য’ বলে উল্লেখ করেন তার এই সফরকালে।
তিনি গত শনি ও রোববার পাকিস্তান সফর করেন।

নয়াদিল্লী ৫ আগস্ট জম্মু ও কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়ার পর প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা চলাকালে ওয়াং পাকিস্তান সফর করলেন।
চীন বলেছে, তারা জম্মু ও কাশ্মিরের বর্তমান পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।
চীন এক বিবৃতিতে বলেছে, কাশ্মির ইস্যুটি ‘ঐতিহাসিকভাবে বিরোধপূর্ণ’ এবং জাতিসঙ্ঘের শর্ত, জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব ও দ্বিপক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী এর যথাযথ ও শান্তিপূর্ণ সমাধান করা উচিত।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘চীন পরিস্থিতি জটিল করে তোলে এমন যেকোনো একতরফা পদক্ষেপের বিরোধী।’
সূত্র : বাসস


আরো সংবাদ




hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik