১৮ আগস্ট ২০১৯

নরেন্দ্র মোদি দেশের সবচেয়ে বড় দুর্যোগ আর দুর্ভোগ : মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় - সংগৃহীত

‘নরেন্দ্র মোদি দেশের সবচেয়ে বড় দুর্যোগ আর দুর্ভোগ। উনি থাকলে মানুষ শান্তিতে থাকতে পারবে না। সে জন্য নরেন্দ্র মোদিকে বিদায় দিন’, রোববার এভাবেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তীব্র কটাক্ষ করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

লোকসভা নির্বাচন উপলক্ষে রোববার পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতনে এক নির্বাচনী সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় মমতা হিন্দুত্ববাদী বিজেপিকে কার্যত তুলোধুনা করে বলেন, ‘বিজেপির মত দাঙ্গাবাজ দল আর কোথাও নেই, ওরা মানুষে মানুষে দাঙ্গা বাধায় আর ভাগাভাগি করে। কখনো দেখেছেন রাজনৈতিক নেতাদের হাতে গদা আর তলোয়ার? গুণ্ডামি আর দাঙ্গা করা রাজনৈতিক নেতাদের কাজ নয়। মানুষের সেবা করা কাজ। মানুষের সেবা না করলে রাজনীতির পতাকা হাতে নেয়া শোভা পায় না।’

মমতা এদিন দেশটির মুসলিমদের রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে সবাইকে আল্লাহর কাছে দোয়া করার আবেদন জানান। তিনি বলেন, আল্লাহ তায়ালার কাছে দোয়া করুন। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রসুলুল্লাহ।

প্রধানমন্ত্রীর মোদির উদ্দেশ্যে মমতা বলেন, ‘উনি গোটা দেশের সর্বনাশ করে দিয়েছেন। কেবল ‘মন কী বাত’ (মনের কথা) আর নিজের প্রচার করে বেড়িয়েছেন। ওনার একটাই কাজ মানুষকে এজেন্সি দিয়ে ভয় দেখানো আর মানুষের ওপর অত্যাচার করা। আগের বার নির্বাচনের সময় উনি ছিলেন চা-ওয়ালা। সাড়ে ৪ বছর বিদেশে ঘুরে বেডিয়ে এখন উনি ‘চৌকিদার’ হয়েছেন!
মমতা বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার গত ৫ বছরে নোট বাতিলের নামে সব ব্যবসা, কৃষি, শিল্প বন্ধ করে দিয়েছে, বারো হাজার কৃষক আত্মহত্যা করেছে, দু’কোটি বেকার হয়েছে। ব্যাংকের লাইনে দাঁড়িয়ে একশ’ জন মারা গেছেন। পেট্রোল-ডিজেলসহ সব জিনিসের দাম বেড়েছে।’ মমতার প্রশ্ন, এই কী ওনার ‘আচ্ছে দিন’ (সুদিন)-এর নিদর্শন? সূত্র : পার্সটুডে।


আরো সংবাদ




bedava internet