১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কড়া শাস্তির মুখে ভারতীয় সেই মেজর

ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিতর্কিত কর্মকর্তা মেজর গগৈ ও তার ব্যবহৃত ‘মানব ঢাল’ - সংগৃহীত

জম্মু ও কাশ্মীরে স্বাধীনতাকামীদের বিরুদ্ধে ‘মানব ঢাল’ বিতর্কের স্রষ্টা মেজর লিটুল গগৈয়ের কোর্ট মার্শাল বিচার প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। পাশাপাশি নৈতিক স্খলনের কারণেও বহুল বিতর্কিত এই সেনা কর্মকর্তা। কাশ্মিরের শ্রীনগরে এক স্থানীয় যুবতীর সাথে অবৈধ উপায়ে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরির দায়ে সেনাবাহিনীতে নিজের পদ হারাতে পারেন এই সেনা কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারি মাসে অভিযুক্ত মেজর গগৈ ও তার গাড়িচালক মাল্লার বিরুদ্ধে সামারি অফ এভিডেন্স পর্ব সম্পূর্ণ হলে কোর্ট মার্শাল প্রক্রিয়া শুরু হয়।

পাশাপাশি নিয়ম লঙ্ঘন করে স্থানীয় নারী বাসিন্দার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করা ও দায়িত্বে থাকাকালীন বিনা অনুমতিতে সংশ্লিষ্ট স্থান ত্যাগ করার দায়েও মেজর গগৈকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। একই অভিযোগে কঠিন শাস্তি পেতে চলেছেন মেজর গগৈয়ের গাড়িচালক সমীর মাল্লা।

২০১৮ সালে শ্রীনগরে এক স্থানীয় যুবতীর সঙ্গে অবৈধ উপায়ে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরির দায়ে এখন সেনাবাহিনীতে নিজের পদ হারানোর পথে বিতর্কিত এই সেনা কর্মকর্তা।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে মেজর গগৈ ও তার গাড়িচালক মাল্লার বিরুদ্ধে সামারি অফ এভিডেন্স পর্ব সম্পূর্ণ হলে কোর্ট মার্শাল প্রক্রিয়া শুরু হয়। বিচারে দুই সেনা কর্মীকে মূলত দু'টি বিশৃঙ্খলার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। প্রথমত, সেনাবাহিনীর নিয়ম লঙ্ঘন করে স্থানীয় নারী বাসিন্দার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি করা। দ্বিতীয়ত, দায়িত্বে থাকাকালীন বিনা অনুমতিতে সংশ্লিষ্ট স্থান ত্যাগ করা।

ভারতীয় সেনাসূত্র বলছে, অভিযুক্ত মেজর ও তার গাড়িচালক এবং মামলার সাক্ষীদের জবানবন্দী নথিভুক্ত করা হয়েছে এবং মেজর গগৈ ও সমীর মাল্লার বিরুদ্ধে শাস্তি ঘোষণা করতে প্রস্তুত সেনা আদালত। গত বছরের ২৩ মে শ্রীনগরের হোটেল থেকে আটক করা মেজর ও মাল্লার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে কড়া শাস্তি দিতে চলেছে আদালত।

আরো পড়ুন : কোর্ট মার্শালের মুখোমুখি সেই ভারতীয় মেজর
নয়া দিগন্ত অনলাইন, (২৭ আগস্ট ২০১৮)

একটু নিকট অতীতে ফিরে যাওয়া যাক। ঘটনাটি গত বছরের। স্বাধীনতার দাবিতে আন্দোলনকারী কাশ্মিরের জনগণের সাথে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ চলছে। স্বাধীনতার স্বাদ আস্বাদনে বহু ত্যাগ স্বীকার করা কাশ্মিরের মুক্তিকামী জনগণের কাছে এ আর নতুন কিছু না। কিন্তু এই ঘটনার সাথে ঘটে যাওয়া আরেকটি বিষয় বিশ্বের সচেতন মানুষের মনে দাগ কেটে যায়

কাশ্মিরে মুসলিম যুবককে ‘মানব ঢাল’ হিসেবে ব্যবহার করা সেই সেনা কর্মকর্তা এবার কোর্ট মার্শারের মুখোমুখি হচ্ছেন। তবে এবার তিনি ‘ধরা খেয়েছেন’ অন্য অভিযোগে।

সে সময় ‘মানব ঢালে’র সেই ঘটনায় কোন শাস্তি তো দূরের কথা, উল্টো মেজর লিতুল গগৈ পুরস্কৃত করা হয়েছিল। বিশ্বব্যাপী তুমুল সমালোচিত কাশ্মিরের বাদগাম জেলার সেই ঘটনার জন্য দায়ী অফিসারকে দেশটির সেনাপ্রধানের পক্ষ থেকে ‍প্রশংসা জানিয়ে পদক দেয়া হয়েছিল।

তবে গত মে মাসে তাকে আটক করে কাশ্মিরের পুলিশ। দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় এক তরুণীর সাথে তাকে হোটেল থেকে আটক করে স্থানীয় পুলিশ। গগৈ কাশ্মিরের বাদগাম এলাকায় কর্মরত ছিলেন। কাশ্মিরের রাজধানী শ্রীনগরের এক হোটেল থেকে স্থানীয় এক তরুণীসহ আটক করে পুলিশ। কোন কোন খবরে সেই তরুণী অপ্রাপ্তবয়স্ক বলেও বলা হয়েছিলো সে সময়। তাদের হোটেল কক্ষে ঝগড়ার করার ঘটনা ঘটেছিলো বলে জানা গেছে। ওই অভিযোগেই এবার কোর্ট মার্শাল বা সামরিক আদালতে বিচারের মুখোমুখী হতে হচ্ছে মেজর গগৈকে।

এক ব্রিগেডিয়ারের নেতৃত্বে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কোর্ট অব ইনকোয়ারি মেজর গগৈকে বিদ্যমান আদেশের বিরুদ্ধে গিয়ে এক নারী সোর্সের সাথে মেলামেশা ও অভিযান চলাকালীন অনুমতি ছাড়া ঘাঁটি ত্যাগ করার দায়ে তাকে প্রাথমিকভাবে অভিযুক্ত করেছে।

সোমবার ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছে, মেজর গগৈয়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তথ্য প্রমাণের ওপর নির্ভর করবে তার কী শাস্তি হতে পারে সেটি। ‘তিরস্কার’ থেকে শুরু করে চাকুরি থেকে বরখাস্ত- যে কোন শাস্তি হতে পারে ওই মেজরের।

গত বছরের ৯ এপ্রিল কাশ্মিরি বিক্ষোভকারীদের ছোড়া পাথর থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় ফারুক আহমেদ দার নামের এক যুবককে নিজের জীপের বনেটে বেঁধে রাখেন মেজর গগৈ। ওই ঘটনার পর মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে, যদিও সেই অভিযোগ থেকে মুক্তি ও সেই সাথে পুরস্কার পান তিনি।

সেই ঘটনার এক বছর পর এ বছরের ২৩ মে তাকে এক তরুণী সহ হোটেল থেকে গ্রেফতার করে কাশ্মিরি পুলিশ। এবার বাহিনীর শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য বিচারের মুখোমুখি তিনি।


আরো সংবাদ

রোমের রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া অর্থ ফেরত দিয়ে আলোচিত বাংলাদেশী তরুণ ফাঁসির রায় শুনে আসামি হাসে বাদি কাঁদে হাতিয়ায় ইলিশের জালে ২২ ভাসমান মহিষ রাজধানীতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৫ পুলিশ সদস্য রিমান্ডে নবম ওয়েজবোর্ডে রোয়েদাদ সুবিধা সঙ্কুচিত করার প্রতিবাদ এমইউজে খুলনার নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীকে বিএফইউজের ধন্যবাদ ভিসির ছেলের ফোনালাপের রেকর্ড শুনলেই সবকিছু পরিষ্কার হয়ে যাবে : সাদ্দাম হোসেন জাফর উদ্দিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ৪ সচিবকে সিনিয়র সচিব পদে পদোন্নতি কাফরুলে স্কুলভবন থেকে লাফিয়ে ছাত্রের আত্মহত্যার চেষ্টা টঙ্গীতে প্রধানমন্ত্রীর জন্মোৎসবের বিলবোর্ড অপসারণ নিয়ে তোলপাড়

সকল