১৮ অক্টোবর ২০১৯

নির্বাচনে জিততে যুদ্ধের দামামা বাজিয়েছেন মোদি : ইমরান খান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি - ফাইল ছবি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ভারতের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে জিততে পাকিস্তানের সাথে যুদ্ধের দামামা বাজিয়েছেন তিনি। মোদির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, নরেন্দ্র মোদি মুসলিমদের উপর বর্বরতা ও নৃশংসতা চালিয়ে তাদেরকে স্বাধীনতা সংগ্রামের দিকে ঠেলে দিয়েছেন। শুক্রবার পাকিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় থার শহরে এক জনসভায় এসব মন্তব্য করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

জনসভায় ইমরান খান আরো বলেন,‘আমি জানি থার শহরের প্রায় অর্ধেক বাসিন্দা হিন্দু ধর্মাবলম্বী। আমি তাদের অধিকার রক্ষা ও নিরাপত্তার দায়িত্ব নিচ্ছি।’

নরেন্দ্র মোদির তীব্র সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, অতীতে মহাত্মা গান্ধী যেসব রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস, বর্বরতা ও নৃশংসতার বিরুদ্ধে অনশন কর্মসূচী পালন করেছিলেন, বর্তমানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও একই রকম রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস ও বর্বরতা চালাচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর দুটি দেশকে যুদ্ধের দিকে ঠেলে না দিতে মোদির প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

জনসভায় ইমরান খান বলেন, পাকিস্তানের মাটিতে কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী অপতৎপরতা চালাতে পারবে না। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর দক্ষিণাঞ্চলীয় থার শহরের ছাচরো এলাকায় এবারই প্রথম সফর করেন ইমরান খান।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানের প্রতিষ্ঠাতা কায়েদ-এ আজম মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেছিলেন, পাকিস্তানে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপত্তা ও অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। বর্তমান সরকার মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ’র সেই নীতি অনুযায়ীই কাজ করছে। পিটিআই সরকার সমগ্র পাকিস্তানে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অঙ্গিকারাবদ্ধ।

উল্লেখ্য, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলায় ৪২ জনের বেশী ভারতীয় আধা-সামরিক বাহিনীর সদস্য নিহত হয়। হামলার দায় জইশ-ই মোহাম্মদ নামে একটি সংগঠনের উপর চাপায় ভারত।

পরে হামলার জবাব দিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের সীমানা ভেদ করে বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় সেনাবাহিনী। ভারতের দাবি হামলায় অন্তত ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। তবে ভারতের এমন দাবি প্রত্যাখান করে পাকিস্তান। পাশাপাশি বিবিসি, রয়টার্স, নিউ ইয়র্ক টাইমস, সিএনএনসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ভারতের এই দাবি সঠিক নয় বলে সংবাদ প্রকাশ করে।

এরপর পাল্টা হামলায় ভারতের দুটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এতে দুই ভারতীয় পাইলট নিহত ও একজন জীবিত আটক হয় পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর হাতে। পরে শান্তির বার্তা হিসেবে আটককৃত ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান। সূত্র : দ্য ডন।

আরো পড়ুন : উত্তেজনার পালে হাওয়া দিচ্ছে ভারত : পাকিস্তান সেনাপ্রধান

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর চীফ অফ আর্মি স্টাফ এবং সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া বলেছেন, উত্তেজনার পালে হাওয়া দিচ্ছে ভারত, যার কারণে পরবর্তীতে এই ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ আকর্ষিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কমান্ডারদের সাথে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে এসব কথা বলেন দেশটির সেনাপ্রধান।

অনুষ্ঠানে জেনারেল কামার জাভিদ বাজওয়া বলেন, ভারত অধিকৃত কাশ্মিরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর অব্যাহত বর্বরতা ও নৃশংসতার কারণে সেখানে এই উত্তেজনা ও অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার স্বার্থেই ভারতকে বর্বরতা ও নৃশংসতা বন্ধ করতে হবে।


পাকিস্তান আইএসপিআর’র বিবৃতি অনুযায়ী সেনাপ্রধান বাজওয়া আরো বলেন,‘সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য নিরাপত্তাবাহিনী কিভাবে ও কোনে নীতিতে ব্যবহার করা হবে তা কেবল রাষ্ট্রের অধিকার।’

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের সাথে সাম্প্রতিক উত্তেজনার সময় সামরিকবাহিনীর সদস্যদের পারফরম্যান্স ও মনোবলের প্রশংসা করেন পাকিস্তান সেনাপ্রধান। পাশাপাশি প্রয়োজনের সময় সমগ্র জাতির নিকট থেকে সমর্থন পাওয়ায় মহান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। সীমান্তে যেকোনো হুমকি মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত থাকতেও সেনাসদস্যদের প্রতি নির্দেশ দেন তিনি।

জেনারেল বাজওয়া বলেন,‘পাকিস্তান সমস্ত প্রতিকূলতাকে পিছনে ফেলে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের পথে হাঁটছে। কেউ কোনো হুমকিতেই আমাদেরকে এই পথ থেকে বিচ্যুত করতে পারবে না।’ ন্যাশনাল অ্যাকশান প্লান (এনএপি) বা জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন করতেও সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।


উল্লেখ্য, সন্ত্রাস ও উগ্রবাদের বিরুদ্ধে দমনাভিযান জোরদার করতে ২০১৪ সালের শেষের দিকে জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা (এনএপি) প্রণয়ন করে পাকিস্তান সরকার। সূত্র : দ্য নিউজ।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum
portugal golden visa