২৫ মার্চ ২০১৯

বাসের দীর্ঘ লাইনের বিশ্বরেকর্ড এখন ভারতের!

বিশ্বরেকর্ড
বাসের দীর্ঘ লাইনের বিশ্বরেকর্ড এখন ভারতের - ছবি: সংগৃহীত

এক সাথে ৫০০ বাসের দীর্ঘ লাইন। দখল করেছে ৩ দশমিক ২ কিলোমিটার এলাকা। আর হয়ে গেল বিশ্ব রেকর্ড। গিনেজ বুক অব রেকর্ডসে এটিই এখন বিশ্বে এ ধরনের সবচেয়ে বড় আয়োজনের রেকর্ড।

বৃহস্পতিবার এমনই স্বীকৃতি পেয়েছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ আয়োজিত কুম্ভমেলার যাত্রা।

উত্তরপ্রদেশ স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (ইউপিএসআরটিসি) গেরুয়া রঙের এই বাসগুলো শাসন টোলপ্লাজা ও নবাবগঞ্জ টোলপ্লাজার মধ্যে থাকা ১৯ নম্বর জাতীয় সড়কে দাঁড়িয়ে ছিল। সংস্থাটির পক্ষ থেকে থেকে ১৮টি জেলার প্রশাসনের কাজে ড্রাইভার ও প্রয়োজনীয় কর্মী নিয়ে বাসগুলো ২৭ ফেব্রুয়ারি মধ্যে কুম্ভমেলায় পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

কুম্ভমেলার লোগো লাগানো ৫শ বাসের এ লাইন আগের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৩৯তম জাতীয় দিবসে আবু ধাবির শেখ খলিফা বিন জায়েদের আয়োজনে হাইওয়েতে ৫ দশমিক ৮ কিলোমিটার জুড়ে থাকা ৩৯০টি বাস বিশ্বরেকর্ড তৈরি করায় গিনেজ বুকে নাম উঠেছিল।

গিনেজ বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে থেকে ভারতের কুম্ভমেলায় তৈরি হওয়া বাসের লাইন পর্যবেক্ষণ করতে পর্যবেক্ষকদের পাঠানো হয়েছিল। পুরো বিষয় পর্যবেক্ষণের পর ৩ দশমিক ২ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে হওয়া ৫শ বাসের প্যারেড বিশ্বরেকর্ড গড়েছে বলে গিনেস কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট দিয়েছেন তারা।

উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব অবনীশ কুমার আবস্তি বলেন, কুম্ভমেলায় গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য মোট ১৩শ হেক্টর জমি নির্ধারণ করা হয়েছিল। তার মধ্যে পরিকল্পনা অনুযায়ী খুব ভালোভাবে এই বাসের প্যারেড করা হয়েছে। পাশাপাশি কুম্ভমেলার জন্য কুম্ভনগরে আসা লাখ লাখ তীর্থযাত্রীর নিরাপত্তার জন্য ২০ হাজারেরও বেশি পুলিশকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন :
হিন্দুদের তীর্থে যাওয়ার রাস্তা বড় করতে ভাঙ্গা হলো মসজিদ
নয়া দিগন্ত অনলাইন, ০৫ জুলাই ২০১৮
হিন্দু তীর্থ যাত্রীদের যাতায়াতের রাস্তা প্রশস্ত করতে মসজিদের অংশ ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। মুসলমানরা নিজেরাই এ কাজ করলেও সরকারি সিদ্ধান্ত ছিল রাস্তা প্রশস্তকরণের।

ঘটনাটি ভারতের উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদের। ভারতীয় মিডিয়ার খবরে প্রকাশ, কুম্ভ মেলার জন্য রাস্তা চওড়া করতে নিজেরাই মসজিদ ভাঙার সিদ্ধান্ত নেন মুসলমানরা। আর মঙ্গলবার সেটি ভাঙ্গা হয়।

আগামী বছর ১৫ জানুয়ারি প্রথম শাহি স্নান দিয়ে এলাহাবাদে শুরু হবে কুম্ভ মেলা। মেলা চলবে ৪৯ দিন ধরে। ৪ মার্চ শিবরাত্রির পর মেলা শেষ হবে। মেলা প্রস্তুতির খোঁজখবর নিচ্ছেন খোদ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। চলছে কুম্ভমেলার আগে রাস্তা চওড়া করার কাজও। সরকারি নির্দেশ আসার আগেই মুসলমানরা নিজে থেকে মসজিদ ভেঙ্গে রাস্তার জন্য জায়গা ছেড়ে দেন।

খবরে প্রকাশ, কুম্ভ মেলার জন্য রাস্তা চওড়া করার সরকারি উদ্যোগকে মুসলমানরা সমর্থন করেন বলে জানিয়েছেন। তাই সেই কাজে মসজিদ ভাঙতেও তাদের আপত্তি নেই।

বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশের পর্যটন বিভাগ আগামী বছরের কুম্ভমেলার প্রসারে ব্যাপক উদ্যোগী হয়েছে। এর অংশ হিসেবে তারা সম্প্রতি প্রচারণা চালিয়েছে ব্রিটিশ পার্লামেন্টেও। সপ্তাহ ধরে লন্ডনের রাস্তায় রোড শোসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

কুম্ভমেলা আহ্বায়ক কমিটির প্রধান রাকেশ শুক্লা সে অনুষ্ঠানে বলেন, কুম্ভ একটি ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক উৎসব। বিশ্বজুড়ে এর একটা আবেদন রয়েছে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সমাবেশ। এখানে লাখো মানুষের সমাগম হয়।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al