২১ আগস্ট ২০১৯

পাকিস্তানকে আমরা বিশ্বাস করি : সৌদি যুবরাজ

সৌদি আরবের ক্রাইন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান - এএফপি

সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বলেছেন, পাকিস্তানকে বিশ্বাস করে সৌদি আরব। সোমবার পাকিস্তান ত্যাগের আগে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি এই কথা বলেন। এসময় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সৌদি যুবরাজের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

গত রোববার এক রাজকীয় সফরে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে পৌছান সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। সোমবার বিকেলে তিনি পাকিস্তান ত্যাগ করেন এবং সেখান থেকে তিনি এশিয়ার আরো বেশ কয়েকটি দেশ সফর করবেন।

পাকিস্তান ও সৌদি আরবের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের দিকে ইঙ্গিত করে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন,‘এটা তো কেবল শুরু। পাকিস্তান একটি শক্ত অর্থনীতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাচ্ছে এবং এই কাজে অংশীদার হয়ে পাশে থাকবে চায় সৌদি আরব।’

এরপরই বক্তব্য দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন,‘সৌদি যুবরাজের এই রাজকীয় সফর পাকিস্তান ও সৌদি আরবের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করেছে। আমাদের দুই দেশের সম্পর্ক সংকীর্ণতার বেড়াজাল থেকে বেরিয়ে অন্য উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।’

ইসলামাবাদের পাশে থাকায় পাকিস্তানের জনগণের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি এরপর পাকিস্তান সফরে আসলে তাকে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে থাকার দাওয়াত দেন ইমরান খান। সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্সকে পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন,‘পাকিস্তানকে আপনি আপনার দ্বিতীয় বাড়ি হিসেবে মনে করবেন।’

সৌদি আরবে আটক থাকা ২ হাজার ১০৭ জন পাকিস্তানী নাগরিককে মুক্তির আদেশ দেয়ায় যুবরাজকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এর আগে রাজকীয় অতিথি মোহাম্মদ বিন সালমানের সম্মানে পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির বাসভবনে দুপুরের খাবারের আয়োজন করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। সেখানে এক অনুষ্ঠানে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের হাতে পাকিস্তানের সর্বোচ্চ বেসামরিক পদক নিশান-ই-পাকিস্তান তুলে দেন প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি।

উল্লেখ্য, পাকিস্তান সফর শেষ করে চীনে যাবেন সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। এর আগে পাকিস্তানের আকাশসীমায় প্রবেশের পর একটি পাকিস্তানী জেএফ-১৭ ও এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের সমন্বয়ে তাকে পাহারা দিয়ে আনা হয়। ইসলামাবাদ পৌছানোর পর দেশটির এই রাজকীয় অতিথিকে ২১ বার গান-স্যালুট দেয় পাকিস্তান।

উত্তেজনার মাঝেই রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিয়েছে পাকিস্তান
নয়া দিগন্ত অনলাইন, (১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯)

কাশ্মিরের পুলওয়ামায় নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর সাম্প্রতিক আত্মঘাতী হামলার প্রেক্ষিতে ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ক ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর সর্বশেষ পদক্ষেপ হিসেবে দিল্লি থেকে নিজেদের হাইকমিশনারকে দেশে ফেরত নিয়ে গেছে ইসলামাবাদ।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ ফয়সাল টুইটারে এ বিষয়ে জানান, ভারতে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে আলোচনার জন্য ফিরে আসতে বলা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে সোমবার সকালেই সোহেল মাহমুদ দিল্লি ছাড়েন। পুলওয়ামার হামলার পরপরই পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার অজয় বিসারিয়াকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়। তার পরই পাক রাষ্ট্রদূত সোহেল মামুদকে ডেকে পাঠিয়ে হামলার কড়া নিন্দা জানান ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখলে।

গত বৃহস্পতিবার চালানো ওই হামলায় সিআরপিএফের ৪৪ জন সদস্য নিহত হয়। আহতের সংখ্যাও শ-খানেক। হামলার কিছুক্ষণ পরই এর দায় স্বীকার করে সশস্ত্র সংগঠন জয়েশ-ই-মোহাম্মদ।


আরো সংবাদ

বগুড়ায় বিদ্যুতের ছেঁড়া তারে বিদ্যুতায়িত হয়ে একজনের মৃত্যু এমপিও তালিকার প্রজ্ঞাপন কয়েক দিনের মধ্যে, কার্যকর গত জুলাই থেকে ২১ আগস্ট নিহত‌দের স্মরণে শহীদ বে‌দী‌তে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন 'ভারতের জামাই' পাকিস্তানি পেসারকে দারুণ অভিনন্দন সানিয়া মির্জার কাশ্মির নিয়ে আবার মধ্যস্ততার প্রস্তাব ট্রাম্পের ট্রেনে আসমাকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয় যেকোনো সময় গ্রেফতার হতে পারেন ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদম্বরম শিশু ধর্ষকের রহস্যজনক মৃত্যু, কী হবে বাচ্চাটির? ১২৮ বছর বয়সের বৃদ্ধের আকুতি : ‘বাবা আমাকে বাঁচাও, ওরা আমারে খেতে দেয় না’ ভারতীয় গোয়েন্দা রিপোর্ট : বারুদের স্তূপে কাশ্মির, যেকোনো সময় বিস্ফোরণ বক্তব্যকে ভুলভাবে নেয়া : যা বললেন জাকির নায়েক

সকল




bedava internet