২১ আগস্ট ২০১৯

অসম প্রেম : নিরাপত্তা দিতে পুলিশকে নির্দেশ আদালতের

ভারত
শামসের ও নবপ্রীত - ছবি : হিন্দুস্থান টাইমস

এক অসম প্রেম। তারপর বিয়ে। কিন্তু তাদের এ মধুর সময়টা তিক্ত করে তুলছে তাদের পরিবারের লোকজন। তাই বাধ্য হয়ে দ্বারস্থ হয়েছেন আদালতের। আদালতও পুলিশকে নির্দেশ জারি করেছে যেন তাদের নিরাপত্তা দেয়া হয়।

ঘটনাটি ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের।

বরের বয়স ৬৭ বছর আর কনের ২৪। তাই এ অসম বিয়ের বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি দুই পরিবারের কেউই। তাই ক্ষিপ্ত হয়ে হুমকি দিচ্ছিল উভয় পরিবার, আদালতে এমন অভিযোগ করা হয়েছে এ দম্পতির পক্ষ থেকে।

বর শামসের সিং থাকেন পাঞ্জাবের ধুরি মহকুমার বালিয়ান গ্রামে। গত জানুয়ারি মাসে ভালোবেসে বিয়ে করেন নবপ্রীত কাউরকে। চন্ডিগড়ের একটি গুরুদুয়ারায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন তারা। তারপরই যত বিপত্তি।

বিয়ের সময় গুরুদুয়ারার থাকা লোকজনের মাধ্যমে সোস্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে তাদের ছবি। তারপরই দুই পরিবারের লোকজন নবদম্পতিকে হুমকি দিতে শুরু করেন।

পরে উপায়ান্ত না দেখে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন শামসের ও নবপ্রীত। পরিবার-পরিজনের হাতে প্রাণনাশের আশঙ্কার কথা জানান আদালতকে। এ সময় তারা আদালতের কাছে তাদের নিরাপত্তার আবেদন জানান। পরে আদালত সাংরুর ও বারনালা জেলার এসএসপিদের ওই দম্পতির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মোহিত সাদামা সংবাদমাধ্যমকে জানান, দুই পরিবারের লোকজনের কাছে এই বিয়েটা অস্বাভাবিক ছিল। তাই প্রাপ্তবয়স্ক হওয়া সত্ত্বেও শামসের ও নবপ্রীতের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়নি কেউ। এমনকি নবদম্পতিকে হুমকিও দিতে শুরু করেন। তাই আদালতের দ্বারস্থ হওয়া ছাড়া উপায় ছিল না এ দম্পতির।

হাইকোর্টের নির্দেশ পেয়েছেন বলে জানান সাংরুর এসএসপি। তাই ওই দম্পতিকে নিরাপত্তায় কোনো কমতি রাখা হবে না বলে জানান তিনি।

সূত্র : হিন্দুস্থান টাইমস


আরো সংবাদ




bedava internet