২১ নভেম্বর ২০১৮

অন্ধ্র প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

চন্দ্রবাবু নাইডু - ছবি : সংগ্রহ

ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ান জারি করেছে দেশটির একটি আদালত। মহারাষ্ট্রের একটি আদালত মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর বিরুদ্ধে জামিন-অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। চন্দ্রবাবু নাইডু ও তার দল তেলেগু দেশম পার্টির আরো ১৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। ২০১০ সালে বাবলি বাধ প্রকল্প সফরের সময় নিষিদ্ধ আদেশ অমান্য করার দায়ে এ রায় দিল আদালত।

২০১০ সালে মহারাষ্ট্রের গোদাবরী নদীর ওপর প্রাদেশিক সরকারের বাবলি বাধ নামের অননুমোদিত সেচ প্রকল্পের বিরুদ্ধে তেলেগু দেশম পার্টির বিক্ষোভের ঘটনায় এই মামলা করা হয়। আগামি ২১ সেপ্টেম্বর পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করে মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু এবং তার দলের ১৪ নেতাকে আদালতে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

ওই ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর দল তেলেগু দেশম পার্টি মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে আসছিলো যে তারা নতুন করে কোনো বাঁধ নির্মাণ না করে বাবলি বাঁধ প্রকল্পের উচ্চতা বাড়াচ্ছিল। তারা বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে গোদাবরী নদীর পানিপ্রবাহ তৎকালীন অবিভক্ত অন্ধ্র প্রদেশের চলাচলের পথ অবরুদ্ধ করছিল।

মহারাষ্ট্র পুলিশ মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুসহ তার দল তেলেগু দেশম পার্টির অন্যান্য নেতারা সীমান্ত দিয়ে পালানোর সময় পুলিশ তাদের বাঁধা দেয়। যখন দলটির নেতারা পার হওয়ার চেষ্টা করছিল পুলিশ তাদের ওপর লাঠিচার্জ করে। এরপর ভারতীয় দন্ডবিধির ১৪৪ ধারা অমান্য এবং পুলিশ কর্মকর্তাদের কাজে বাঁধা দেওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয় পুলিশের পক্ষ থেকে।

এরপর এ মামলার শুনানিতে মহারাষ্ট্রের ধর্মাবাদের একটি আদালত চন্দ্রবাবু নাইডুসহ তার দলের ১৪ নেতার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে।


আরো সংবাদ