১৩ নভেম্বর ২০১৮

আরো দূরত্বে নেপাল-ভারত : এবার বাতিল সেনা মহড়া

ভারত
বিমসটেক সম্মেলনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি ওলি - ছবি : রয়টার্স

বিমস্টেক দেশগুলোকে নিয়ে একসাথে যৌথ সেনা মহড়া হওয়ার কথা সোমবার থেকে। ভারতের পুনেয় সেই মহড়ায় বাকি সদস্য দেশ অংশ নিলেও নাম তুলে নিল নেপাল। সেদেশের প্রধানমন্ত্রী কেপি ওলির তথ্য উপদেষ্টা কুন্দন আরইয়াল একথা জানিয়েছেন। সেপ্টেম্বরের ১০ তারিখ থেকে হতে চলা সেনা মহড়ায় নেপাল অংশ নিচ্ছে না, স্পষ্ট করেছেন তিনি।

তবে কেন নেপাল আচমকা নাম তুলে নিল তা নিয়ে মুখ খুলতে চাননি কুন্দন। নেপালে কমিউনিস্ট পার্টি এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিল। নেপালে বিরোধের মুখে পড়তে হয় প্রধানমন্ত্রী কেপি ওলিকে। বলা হয়েছে, নেপাল ও ভারতের মধ্যে কোনো কূটনৈতিক বা রাজনৈতিক সন্ধি নেই।

নেপালি বিশেষজ্ঞরাও দাবি করেছিলেন, সেনা মহড়ায় অংশ নিয়ে নেপালের কোনো লাভ নেই।

প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞ অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল এসবি আস্থানার মতে, নেপালে ভারতবিরোধী ভাবনা বাড়ছে। যার ফলে এই সিদ্ধান্ত হতে পারে।

দুদিন আগেই চীনের সঙ্গে চারটি বন্দর ব্যবহারের চুক্তি করেছে নেপাল। আগে ভারতের দুটি বন্দরই নেপাল ব্যবহার করত। কলকাতা ও বিশাখাপত্তনম বন্দর। এবার চীনের চারটি বন্দর নিয়ে বিদেশের সঙ্গে বাণিজ্য করতে পারবে নেপাল। ফলে ভারতের উপরে অতি নির্ভরতা কিছুটা কাটিয়ে ওঠা যাবে। সূত্র : ওয়ান ইন্ডিয়া।

আরো পড়ুন :
নেপালকে চীনের ৭ বন্দর ব্যবহারের অনুমতি, দুশ্চিন্তায় ভারত
রয়টার্স
নেপালকে চারটি সমুদ্রবন্দর ও তিনটি স্থলবন্দর ব্যবহারের সুযোগ দিচ্ছে চীন। নেপাল সরকার এ কথা জানিয়েছে। শুক্রবার দেশ দু’টির কর্মকর্তারা এ-সংক্রান্ত একটি চুক্তির খসড়া চূড়ান্ত করেছেন। চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর কাঠমান্ডু চীনের তিয়ানজিন, শেনজেন, লিয়ানইয়ুংগাং ও ঝানজিয়াং সমুদ্রবন্দর ব্যবহার করতে পারবে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে নেপালের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এর পাশাপাশি চীনের তিনটি স্থলবন্দর লানঝৌ, লাসা ও জিগাৎসে ব্যবহারেরও সুযোগ দেয়া হচ্ছে বলে কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন। খসড়ায় বন্দর সংশ্লিষ্ট সড়কগুলোও নেপাল ব্যবহার করতে পারবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

নেপালের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা রবি শংকর সাইনজু বলেছেন, ‘ভারতের দুটো বন্দরের পাশাপাশি আমরা এখন থেকে চীনেরও চারটি সমুদ্রবন্দর ব্যবহারের সুযোগ পেতে যাচ্ছি, এটি একটি মাইলফলক।’ দুই দেশের মধ্যে সমঝোতা হলেও কবে চুক্তি স্বাক্ষর হবে তা জানাতে পারেননি তিনি। সিদ্ধান্তটি কার্যকর হওয়া শুরু করলে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও উত্তর এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে নেপালে আসা কার্গোবাহী জাহাজের সময় ও খরচ দুই-ই সাশ্রয় হবে।

বেইজিং ও কাঠমান্ডুর মধ্যে এই সমঝোতা দিল্লির কপালে ভাঁজ ফেলবে বলেই মনে করা হচ্ছে। স্থলবেষ্টিত নেপালের সঙ্গে অন্য দেশগুলোর বাণিজ্য ও যোগাযোগের ক্ষেত্রে ভারত যে একচ্ছত্র প্রভাব বিস্তারের সুযোগ নিত, চীনা বন্দর ব্যবহারের সুযোগ তা খর্ব করবে বলেই ধারণা পর্যবেক্ষকদের।

এশিয়ার দুই প্রভাবশালী দেশ চীন ও ভারতের সঙ্গে সীমান্ত থাকা নেপাল এত দিন জ্বালানিসহ জরুরি পণ্য সরবরাহ ও অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে দিল্লির বন্দরগুলোর ওপরই নির্ভরশীল ছিল। ২০১৫-১৬’র কয়েক মাস ভারত নেপালের ওপর অবরোধ আরোপ করলে জ্বালানি ও ওষুধ সঙ্কটে পড়া কাঠমান্ডু তখন থেকেই বিকল্প পথ খুঁজতে থাকে। শুক্রবারের সমঝোতাকে হিমালয়ের দুই পাশের দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বৃদ্ধির নিদর্শন হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

স্থলবেষ্টিত নেপালের বাণিজ্য যোগাযোগ এখন পর্যন্ত ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় কলকাতা বন্দরকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছে; নয়াদিল্লি সম্প্রতি নেপালের জন্য দক্ষিণের বিশাখাপট্টম বন্দরও খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, চীনের সঙ্গে নেপালকে যুক্ত করতে চাইলে সীমান্তের নেপাল অংশের সড়ক ও শুল্ক ব্যবস্থাপনার ঘাটতি মেটাতে হবে। হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত নেপাল থেকে চীনের সবচেয়ে কাছের বন্দরের দূরত্বও দুই হাজার ৬০০ কিলোমিটারের বেশি।

উলের কার্পেট রফতানিকারক ব্যবসায়ী অনুপ মাল্লা বলেছেন, চীনের বন্দরে দ্রুত প্রবেশাধিকারের জন্য নেপালকে অবশ্যই তাদের অবকাঠামোর উন্নয়ন ঘটাতে হবে। পর্যবেক্ষকেরা বলছেন, নেপালে ভারতের প্রভাব কমাতে দেশটিতে বিনিয়োগ ও সহায়তার পরিমাণ বাড়াচ্ছে বেইজিং; এর মাধ্যমে দিল্লির প্রতি চ্যালেঞ্জও ছুড়ে দিচ্ছে তারা। নেপালের ভেতর রেলওয়ে, বিদ্যুৎ সংযোগ লাইন নির্মাণ এবং দুই দেশের মধ্যে অবাধ বাণিজ্য চুক্তি নিয়েও বেইজিং ও কাঠমান্ডুর মধ্যে আলোচনা চলছে।


আরো সংবাদ

১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করতে চান ড. কামাল আস্থা রাখুন, হিন্দু সম্প্রদায়কে ফখরুল ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আগের চেয়ে বেশি দমনমূলক : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল আ’লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হলেন ফারুক খান ও আব্দুর রাজ্জাক সহকর্মীর আঘাতে প্লাস্টিক ফ্যাক্টরির কর্মচারী নিহত শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মিরুর জামিন স্থগিত শিশুশ্রম নির্মূলের ল্যমাত্রা অর্জনে দেশ যথেষ্ট পিছিয়ে নির্বাচনী তফসিল পুনর্নির্ধারণ জাপা ইতিবাচকভাবেই দেখছে : জি এম কাদের ৩২ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে খেলাফত আন্দোলন অভিভাবক ঐক্য ফোরাম চেয়ারম্যানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি

সকল