১৪ নভেম্বর ২০১৮

ধর্ম অবমাননা : মুসলিম দেশগুলোর সমালোচনায় ইমরান খান

ইমরান খান - ফাইল ছবি

ধর্ম অবমাননামূলক বিষয়গুলো বন্ধ করতে না পারাকে মুসলিম দেশগুলোর ‘সম্মিলিত ব্যর্থতা’ হিসেবে অভিহীত করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ধর্ম অবমাননা বন্ধে কোন যথাযথ আন্তর্জাতিক নীতি না থাকার কারণেই তা কমছেনা বলে মনে করেন ইমরান। পার্লামেন্টে দেয়া বক্তৃতায় এসব কথা বলেন এই নেতা। বিষয়টি জাতিসঙ্ঘে উত্থাপনের পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি।

সোমবার পাকিস্তানের পার্লামেন্ট সিনেটে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেয়া প্রথম বক্তৃতায় ইমরান খান বলেন, আমার সরকার বিষয়টি জাতিসঙ্ঘে উত্থাপন করবে। তবে আমার মনে হয় না সেটিই যথেষ্ট হবে।

এদিন পাকিস্তান সিনেটে ডাচ নেতা গ্রিট উইল্ডার্সের ধর্ম অবমাননামূলক কার্টুনের প্রতিযোগীতার বিষয়টি জাতিসঙ্ঘের নজরে আনার জন্য একটি প্রস্তাব পাস হয়। নেদারল্যান্ডের ফ্রিডম পার্টির ইসলাম বিদ্বেষী ওই নেতা এ ধরনের একটি প্রতিযোগীতা আয়োজনের পরিকল্পনা করছেন। এর আগে গত সপ্তাহে উইল্ডার্সের ঘোষণার বিষয়ে পাকিস্তানের নিয়োজিত নেদারল্যান্ডের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্সকে ডেকে প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ইমরান খান তার বক্তৃতায় বলেন, ‘আমারদের সরকার বিষয়টি ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থা ওআইসিতে বিষয়টি তুলবে এবং আন্তর্জাতিক ফোরামগুলোতে গ্রহণযোগ্য হয় এমন একটি নীতি গ্রহণ করতে মুসলিম দেশগুলোকে আহ্বান জানাবে’।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আরো আগেই এটি করা উচিত ছিলো’। এসময় তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিটলার কর্তৃক ইহুদি নিধনের বিষয়ে ভুল তথ্য প্রদানকারীদের বিরুদ্ধে চারটি ইউরোপীয় দেশের কঠোরতার বিষয়টি উল্লেখ করেন।


আরো সংবাদ