০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

ইডেনে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ!

-

পুরোপুরি তিন দিনও লাগেনি। বল-ব্যাটে আধিপত্যের ইন্দোর টেস্টে ভারতের ইনিংস ব্যবধানের জয়োৎসব নিশ্চিত ৮ সেশনের মধ্যেই। প্রথম ম্যাচের অপ্রত্যাশিত সমাপ্তি আসন্ন ইডেন টেস্টের সম্ভাব্য পরিনীতির ব্যাপারে ক্রিকেট অঙ্গনের কৌতূহল রাতারাতিই আলোচনার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু দখলে নিয়েছে। ব্যাপকভিত্তিক বিশ্লেষণও শুরু হয়ে গেছে সিরিজের দ্বিতীয় খেলায়ও কি ভারত একচ্ছত্র ক্রিকেট উপহার দিতে চলেছে এ রকম প্রশ্নের আগাম উত্তর সংশ্লিষ্ট বিষয়ে! পারফরম করার বাড়তি স্নায়ুচাপে থাকা টাইগারদের জন্য স্বস্তির বার্তা হিসেবে উদ্ভাসিত আসন্ন টেস্টের জন্য ইডেনের কিউরেটর সুজন মুখার্জির ‘স্পোর্টিং উইকেট’ খেলা আনুষ্ঠানের ঘোষণা। বহুল আলোচিত গোলাপি বলের ম্যাচে উপভোগ্য ক্রিকেট দেখার দৃঢ় আশাবাদও ব্যক্ত করেছেন ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) কিউরেটর।
গতকাল রোববার ইন্দো এশিয়ান নিউজ সার্ভিসের সাথে কথপোকথনের একপর্যায়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ইডেন টেস্ট নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে উপযুক্ত পিচ বানানোর সর্বাত্মক চেষ্টার কথাও জানান সুজন মুখার্জি। তিনি বলেন,‘ সাইক্লোন বুলবুল কিছুটা হলেও বিঘœ সৃষ্টি করেছে প্রত্যাশিত পিচ প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে। তবে পারফেক্ট স্পোর্টিং উইকেট নিয়ে সব শঙ্কা দূর হয়েছে। এই মুহূর্তে আবওহায়াও দারুণ যাচ্ছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ দ্বিতীয় টেস্ট নিশ্চিত করার উপযুক্ত উইকেট ইতোমধ্যেই সুস্পষ্ট হয়েছে। পিচ দেখে মনে হয় কয়েক বছর ধরে এখানেই ছিল। ইডেন দারুণ একটি টেস্ট ম্যাচ উপহার দেবে। আমি চেষ্টার কোনো ত্রুটি রাখছি না।
আসছে ২২ নভেম্বর ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার দ্বৈরথ দিয়ে উপ-মহাদেশের মাটিতে যাত্রা শুরু করবে দিবা-রাত্রির টেস্ট। কলকাতার ঐতিহাসিক ভেনু ইডেন গার্ডেনসে গত শুক্রবার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের লড়াইয়ে মাঠে নামবে দল দু’টি। গোলাপি বলের পাঁচ দিনের ক্রিকেটের আদর্শ উইকেটে পেসারদের বাড়তি বাউন্স অ্যাডভান্টেজ বাস্তবতা ইডেনেও দেখা যাবে কি না , তা নিশ্চিত করতে রাজি হননি সুজন মুর্খাজি। তিনি বলেন, ‘লাল বলের পিচেই হবে ইডেন টেস্ট। এখানো পর্যন্ত আমি ওই প্ল্যানেই কাজ করে যাচ্ছি। বড় কোনো ব্যতিক্রমতার সম্ভাবনাও দেখছি না। লাল বলের প্রত্যাশিত আচরণই করবে উইকেট। মূলত উপভোগ্য ক্রিকেটের ভেনু হিসেবে সুপরিচিত ইডেন। পিচে দুই দলের জন্যই কিছু না কিছু থাকবে।
লংগার ভার্সনের সিরিজের উদ্বোধনীতে ন্যূনতম প্রতিদ্বন্দ্বিতাও গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের ভরাডুবি ‘এক্স ফ্যাক্টর’ ভূমিকা সফরকারীদের অসহায় আত্মসমর্পণে। প্রথম টেস্টের নির্ধারিত পাঁচ দিনের খেলা অর্ধেক সময়ের মধ্যে সমাপ্তি প্রত্যাশিত ক্রিকেটীয় বিনোদন উপভোগ থেকে বঞ্চিত করেছে ভক্তদেরও। ইন্দোরে স্বাগতিকদের একতরফা দাপটে কোণঠাসা বাংলাদেশের জন্য গোলাপি বলের ঐতিহাসিক ইডেন গার্ডেনস টেস্ট পরিণত হয়েছে মর্যাদা পুনরুদ্ধারের খেলায়। হতাশ ভক্তদের আবার আস্থায় ফেরানোর প্রশ্নে কম করে হলেও প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রদর্শনীর কোনো বিকল্প নেয় টাইগারদের সামনে।


আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik