০৮ ডিসেম্বর ২০১৯

কোহলির উইকেটটি ছিল স্বপ্নের

-

বাংলাদেশ-ভারত সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রথম দিনের শেষ বেলায় রোহিত শর্মার উইকেটটি পেয়েছিলেন আবু জায়েদ চৌধুরী। পরের দিন সকালে পেয়ে গেলেন আরো বড় শিকার। ভারতীয় বর্তমান সেনসেশন বিরাট কোহলিকে ফেরান শূন্য রানে। প্রথম টেস্টে ১০৮ রানে ৪ উইকেট নেন আবু জায়েদ। টেস্টে এটাই তার প্রথম চার উইকেট শিকার। আবু জায়েদ চৌধুরী জানালেন, ভারত অধিনায়কের উইকেটটি ছিল তার স্বপ্নের উইকেট।
ইনিংস ও ১৩০ রানে পাঁচ দিনের ম্যাচ মাত্র তিন দিনেই প্রথম টেস্ট হেরে গেছে বাংলাদেশ। গতকাল হলকার স্টেডিয়ামে ছিল সফরকারীদের ঐচ্ছিক অনুশীলন। অনুশীলন শুরুর আগে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা আবু জায়েদ জানান, কোহলির উইকেট পাওয়ার পর সতীর্থরা অনেক উৎসাহ দিয়েছেন তাকে। তার কথায়, ‘বিরাট কোহলি বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র্যাঙ্কিংয়ে এক বা দুই নম্বরে আছেন। তার উইকেটটি আমার ড্রিম উইকেট। তাকে আউট করার পর সতীর্থরা অনেক প্রশংসা করেছেন।’ ইন্দোর টেস্টের দ্বিতীয় দিন সকালে দারুণ এক ডেলিভারিতে কোহলিকে এলবিডব্লিউ করেন আবু জায়েদ। তীক্ষœ বাঁক নিয়ে ভেতরে ঢোকা বল ব্যাটে খেলতেই পারেননি সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান। বল পেছনের পায়ে লাগলে এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন করে বাংলাদেশ। আম্পায়ার সাড়া না দিলে রিভিউ নেন মুমিনুল হক। বল ট্র্যাকিংয়ে দেখা যায় বল লাগত লেগ স্টাম্পে। পাল্টায় সিদ্ধান্ত। দুই বল খেলে খালি হাতে ফিরে যান কোহলি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেটাই বাংলাদেশের বিপক্ষে তার প্রথম খালি হাতে সাজঘরে ফেরা।


আরো সংবাদ




Paykwik Paykasa
Paykwik