২০ জুন ২০১৯

শীর্ষে ওঠার লড়াইয়ে ভারত-নিউজিল্যান্ড

-

আজ বৃহস্পতিবার নটিংহ্যামে মুখোমুখি হচ্ছে এবারের বিশ্বকাপের এখন পর্যন্ত অপরাজিত দুই দল ভারত ও নিউজিল্যান্ড। তিন ম্যাচে তিনটিতেই জয়ী হয়ে পূর্ণ ৬ পয়েন্ট নিয়ে নিউজিল্যান্ড টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। অন্য দিকে দুই ম্যাচে শতভাগ জয় নিয়ে ভারতের সংগ্রহে আছে ৪ পয়েন্ট। এই ম্যাচের মাধ্যমে টেবিলের শীর্ষে ওঠার লড়াইয়ে দুই দলের সামনেই থাকছে সমান সুযোগ।
তবে ম্যাচটিতে এবারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় খলনায়ক বৃষ্টির বাধা আবারো আসতে পারে বলে পূর্বাভাস রয়েছে। ভারতীয় শিবিরে অবশ্য ওপেনার শিখর ধাওয়ানের অনুপস্থিতি নিয়ে দুশ্চিন্তা রয়েছে। ধাওয়ানের অনুপস্থিতিতে কে এল রাহুল ও রোহিত শর্মাকে নিয়ে গড়া নতুন উদ্বোধনী জুটিকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত নিউজিল্যান্ডের ইনফর্ম পেস অ্যাটাক। বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলিতে চিড় ধরায় অন্তত তিন ম্যাচের জন্য দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ধাওয়ানের সার্ভিস পাচ্ছে না টিম ইন্ডিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচে ধাওয়ানের ফর্ম নিঃসন্দেহে ভারতের জয়ে সহযোগিতা করেছে; যে কারণে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রিকে ব্ল্যাক ক্যাপসদের নিয়ে নতুন করে চিন্তা করতেই হচ্ছে।
বড় আসরে ভারতের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড জয়ের দিক দিয়ে কিছুটা এগিয়ে। এ পর্যন্ত বিশ্বকাপের দুই দলের সাত মোকাবেলায় কিউইরা জিতেছে চারটিতে, ভারত তিনটিতে। কেন উইলিয়ামসনের দল জয়ের ধারা ধরে রেখে চতুর্থ ম্যাচেও এগিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর। ধাওয়ান ও রোহিত মিলে ভারতের অন্যতম সফল উদ্বোধনী জুটির তকমা ইতোমধ্যেই অর্জন করে ফেলেছেন। আর সে কারণেই বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে এসে ধাওয়ানের অনুপস্থিতিতে ভারত তাদের প্ল্যান ‘বি’তে সফল হয় কি না, তাই এখন দেখার বিষয়। উদ্বোধনী জুটিতে রাহুলের অন্তর্ভুক্তি নিঃসন্দেহে বিজয় শঙ্কর ও দিনেশ কার্তিকের যেকোনো একজনকে ৪ নম্বরে উঠিয়ে নিয়ে আসবে।
রাহুলের জন্য এই পরিস্থিতিতে ইনিংস সূচনা করাটা কিছুটা চাপ মনে হলেও হঠাৎ পাওয়া সুযোগটা পুরোপুরি কাজে লাগাতে প্রস্তুত এই প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান। বিশেষ করে নতুন বলে ট্রেন্ট বোল্টকে মোকাবেলা করাটা খুব একটা সহজ কাজ হবে না। যদিও ২২ গজের অপর প্রান্ত থেকে রোহিত শর্মার পূর্ণ সমর্থন তো থাকবেই। কন্ডিশন বিবেচনায় রোহিত শর্মা যেভাবে নিজের পারফরম্যান্সকে রূপান্তরিত করতে পারেন, তা অনেকের কাছেই অনুকরণীয় হতে পারে। পাওয়ারপ্লেতে ভারত বেশ কিছু দিন ধরেই স্ট্রোক প্লেয়ার রোহিতের ওপর নির্ভরশীল। প্রথম দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি ও হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়া ভারতের সহ-অধিনায়ক নিজেকে প্রমাণে মুখিয়ে আছেন। যদিও বোল্টের চ্যালেঞ্জ তার জন্যও অপেক্ষা করছে।
ওভালে অনুশীলন ম্যাচে বোল্ট ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের স্বস্তি দেননি। তার পর থেকে প্রায় দুই সপ্তাহ কেটে গেছে, আর বোল্ট এখন পর্যন্ত এই টুর্নামেন্টে খুব একটা সুইং দেখাতে পারেননি। যদিও তার বোলিং স্টাইল কখনই কন্ডিশনের ওপর খুব একটা নির্ভর করে না।
নিউজিল্যান্ডে ‘১৫০ কিমি গতিমানব’ লোকি ফার্গুসনও আজকের ম্যাচে নিজেকে প্রমাণের জন্য মুখিয়ে আছেন। বিশেষ করে ট্রেন্ট ব্রিজের ট্র্যাক বাউন্স সহায়ক হওয়ায় তা পেসারদের বাড়তি সুবিধা দেবে। ফার্গুসন বলেন, ‘আমরা ভালো খেলতে চাই। এটি বিশ্বকাপ। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে আমাদের সামনে সুযোগ এসেছে ২ পয়েন্ট অর্জন করে আরো এগিয়ে যাওয়ার। যদিও বৃষ্টি বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তবে এর ওপর কারো হাতে নেই।’
এ পর্যন্ত ভারতের বিপক্ষে মাত্র তিনটি ওয়ানডে খেলেছেন ফার্গুসন। তিনটিই এ বছরের জানুয়ারিতে। ভারত তিনটি ম্যাচেই সহজ জয় তুলে নিয়েছিল। ওই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ফার্গুসন ৮১ রানে ২ উইকেট পেয়েছিলেন। কিন্তু এখন তার সামনে সুযোগ এসেছে ওই ম্যাচগুলোর শিক্ষাকে কাজে লাগানোর। ফার্গুসনের মতে, প্রথমেই উইকেট তুলে নিতে পারলে সেটা ভারতকে পরাজিত করার ক্ষেত্রে কাজে আসবে। এতে তারা চাপে পড়বে ও ডটের সংখ্যা বাড়বে। অবশ্যই এবারের আসরে ভারত অন্যতম ফেবারিট। কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে তাদের বিপক্ষে ভালো খেলার সুযোগটা আমরাও হারাতে চাই না।

 


আরো সংবাদ