১৭ জুন ২০১৯

ভারতের ‘তুরুপের তাস’ ধোনি!

-

মহেন্দ্র সিং ধোনি আসন্ন বিশ্বকাপে ভারতের ‘তুরুপের তাস’ বলেই অভিমত দিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জহির আব্বাস। ক্রিকেটের মেগা আসরে উইকেটরক্ষক কাম ব্যাটসম্যানের অতীত সাফল্যের অভিজ্ঞতা কোহলির দলের জন্য ‘বিশেষ অস্ত্র’ হিসেবে কাজ করবে বলেও জানান এশিয়ার ব্র্যাডম্যান খ্যাত সাবেক পাকিস্তানি সুপারস্টার।
দরজায় কড়া নাড়তে থাকা আসন্ন ইংলিশ বিশ্বকাপের ফ্ল্যাট উইকেট ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং ইউনিটের প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স প্রদর্শনে সহায়ক হবে বলে দাবি করেছেন জহির আব্বাস। যদিও তার ফেবারিট চার সেমিফাইনালিস্টের তালিকায় অনুপস্থিত দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানকেই সেমির রেসে এগিয়ে রাখছেন আব্বাস। তার মতে, সম্ভাব্য সেরা কম্বিনেশনের বিশ্বকাপ দলই চূড়ান্ত করেছে বিরানব্বইয়ের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। নিজেদের দিনে সরফরাজ অ্যান্ড কোং যেকোনো দলকেই হারিয়ে দেয়ার সামর্থ্য রাখে বলেও সাফ জানিয়ে দিলেন আব্বাস। ফিনটেস বিচারে ‘পারফেক্ট’ দলটিকেই আইসিসির ১২তম বিশ্বকাপ জয়ের ‘হট ফেবারিট’ খ্যাতি দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক ব্যাটসম্যান।
প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আব্বাস বলেন, ‘ভারতীয় দলের অন্যতম সদস্য জিনিয়াস ধোনি। আসন্ন বিশ্বকাপে তিনি দেশটির গেমপ্ল্যানের ব্রেন চাইল্ডের ভূমিকা পালন করবেন। উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে ক্রিকেটকে উপলব্ধি করায় ধোনির তুলনা চলে না। তার দুই বিশ্বকাপ জয়ের অভিজ্ঞতা এবারের মেগা আসরে ভারতীয়দের সিক্রেট অস্ত্রের ভূমিকা পালন করবে। ধোনিই দেশটির ১২তম বিশ্বকাপের ট্র্যাম্পকার্ড।’
ধোনির নেতৃত্বে ২০০৭ সালে ইতিহাসের প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার কৃতিত্ব দেখায় ভারত। ‘ক্যাপ্টেন কুল’ খ্যাত ব্যাটসম্যান নিশ্চিত করেন দেশটির ৫০ ওভারের ফরম্যাটের দ্বিতীয় ট্রফি উৎসব। ২০১১ সালে অন্যতম আয়োজক ভারতীয়দের আইসিসির ১০ম বিশ্বকাপ জয়ে অসামান্য অবদান রাখেন ধোনি। সাম্প্রতিক সময়ে ‘কুল ফিনিশার’ খ্যাতির ধারাবাহিকতা অটুট রাখায় তিনি কিছুটা হলেও ছন্দপতন দুঃস্বপ্ন হজম করেছেন; কিন্তু তার বড় আসর জয়ের অভিজ্ঞতা অত্যন্ত কার্যকর হয়ে উঠতে পারে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপে ভারতীয়দের সাফল্যে। আব্বাস বলেন, ‘‘২০১৯ সালের বিশ্বকাপের ভাগ্য নির্ধারণের রেসে ফিটনেস ‘এক্স ফ্যাক্টর’ ভূমিকা পালন করবে। ফিটনেস বিচারে নিখুঁত দলটিই হট ফেবারিট ইংলিশ বিশ্বকাপের।’’ পাকিস্তানের জার্সিতে ১৬ বছরের বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে ৭৮ টেস্ট ও ৬২ ওয়ানডে খেলেছেন জহির আব্বাস।


আরো সংবাদ