২২ মে ২০১৯

বাইরে থেকেই বেশি শেখেন ইমরুল

-

জাতীয় দলে আসা-যাওয়ার নিয়মিত মুখ ইমরুল কায়েস। তবে যেকোনো পরিস্থিতিতেই নিজেকে মানিয়ে নিতে পারেন। হা-পিত্তেষ করেন না। যখন যেভাবে সুযোগ হয় সেটিকেই মেনে নেন। এটা তার নিয়তি হয়ে গেছে বলেও মনে করেন তিনি। বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি বলে ভেঙে পড়েননি। কঠিন বাস্তবতায় নিয়তির সাথে আপস করেন। যেকোনো সময় সুযোগ আসবে বলে নিজেকে তৈরি রাখেন বর্তমানে বিসিবির এলিট স্কিল ক্যাম্পে থাকা ইমরুল।
বাংলাদেশ দলের কেউ চোটে পড়লে ইমরুলের ডাক আসার সম্ভাবনা তৈরি হওয়া ‘অলিখিত রীতি’। গত এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপে এভাবেই দলে ঢুকেছেন তিনি। অপ্রত্যাশিত প্রক্রিয়া এখন উপভোগ করতে শিখে গেছেন ইমরুল। উপেক্ষায় আসে নতুন উপলব্ধি। বাইরে থাকলে শেখেন অনেক কিছু। সব খুলে না বললেও আক্ষেপ আর অনুযোগের সুর মিশে থাকল তার কথায়। ‘একটা জায়গায় কেউ যখন আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকে তখন অনেক কিছু দেখা যায়, শেখা যায়। আমার ক্ষেত্রে হয়তো ওটাই...। দলের বাইরে থেকেও আমি অনেক কিছু শিখি। অনেক কিছু উপলব্ধি করতে পারি। আবার যখন দলে যাই ওই জিনিসটা প্রয়োগ করতে পারি। এটা আমার কাছে আর খারাপ লাগে না।’
এলিট ক্যাম্প বাংলাদেশ দলের ব্যাকআপের জন্য করা হয়েছে। যাতে সরাসরি জাতীয় দলে এখান থেকে খেলোয়াড় নেয়া যায়। এর আগেও এমন হয়েছে এশিয়া কাপ ও গত বিশ্বকাপে হঠাৎ দলে ঢুকে গেছেন। এবার বিশ্বকাপ স্কোয়াডের জন্য কতটা প্রস্তুত। এমন প্রশ্নে ইমরুল বলেন, ‘প্রথমে বলি, দলের কেউ যাতে ইনজুরিতে না পড়ে। সবাই দেশের জন্যই সেখানে যাবে। সবার চোখেই স্বপ্ন থাকে দেশের প্রতিনিধিত্ব করার। নিজে কিছু অবদান রাখার জন্যই সেখানে যায়। তারপরও অনাকাক্সিক্ষত কিছু হলে সেখানে যাওয়ার জন্য এরকম ক্যাম্প থাকলে অন্তত নিজেকে প্রস্তুত রাখা যায়। কোনো সময় ডাক পড়লে যাতে ওই জায়গাটা হ্যান্ডল করা সহজ হয়। না হলে হুট করে গিয়ে খেলাটা কঠিন। আন্তর্জাতিক ম্যাচের ফিটনেস ও ঘরোয়া ক্রিকেটের ফিটনেস দুইটা দুই রকম।’

 

 

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা ক্যাম্পটা খুব সিরিয়াসলি করছি, কারণ বলা যায় না, এখান থেকে খেলোয়াড় দরকার হলেও হতে পারে। এখানে প্রাকটিসে আছি স্কিল নিয়ে। যদি সুযোগ আসে যেকোনো কন্ডিশনে যেকোনো পরিস্থিতিতে খেলার জন্য আমি প্রস্তুত। সমস্যা নেই। এরকম একটা সুযোগ করে দেয়ার জন্য বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাই। যারা বাসায় বসেছিলাম প্রিমিয়ার লিগের পর কাজ ছিল না, তাদের জন্য অনেক ভালো, ক্যারিয়ারের জন্যও ভালো।’

 


আরো সংবাদ

কাশ্মীরে নিরাপত্তা হেফাজতে নির্যাতনের লোমহর্ষক বিবরণ সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে : প্রধানমন্ত্রী পেশাজীবীদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার ৬ মাস পর কারামুক্ত বিএনপি নেতা শেখ রবিউল আলম নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে তিন মন্ত্রণালয়কে সমন্বিতভাবে কাজ করার পরামর্শ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন ২ জুলাই ৩ টাকার বালিশ তুলতে খরচ ৫ টাকা? রুমিন ফারহানার প্রার্থিতা বৈধ কৃষকেরা অধিকার থেকে বঞ্চিত : মাওলানা আতাউল্লাহ শাহজালাল বিমানবন্দরে সোয়া ৩ কোটি টাকার স্বর্ণসহ একজন গ্রেফতার পশ্চিম রাজাবাজারের জলাবদ্ধতা নিরসনের দাবি আওয়ামী লীগ-বিএনপির তরুণ নেতাদের

সকল




agario agario - agario