২২ নভেম্বর ২০১৮

জরিমানা না দিতে তদবির

-

নাম এন্ট্রি করেও পাকিস্তান যেতে অস্বীকৃতি জানায় বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন (বাহফে)। ফলে এএইচএফ ও এফআইএইচের নিয়মের বেড়াজালে আটকে গেছে বাহফে। জরিমানা না দিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নানা রকম চিঠি চালাচালি ও ফোনের মাধ্যমে তদবির শুরু করেছে বাহফে সাধারণ সম্পাদক। বিষয়টি এত দিন ধাপাচাপা থাকলেও গতকাল সেটি সামনে এসেছে। বর্তমান হকি কার্যনির্বাহী কমিটিতে চিঠি চালাচালি এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ফোনের মাধ্যমে কথা বলার একজনই আছেন, তিনি হলেন আব্দুস সাদেক। অন্যরা বিষয়টি জানলেও অভিজ্ঞতার অভাবে জরিমানার আওতামুক্ত হতে পারেনিন।
বাহফের এক কর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ফোনে ফোনে তো আর ফেডারেশন চলে না। ফেডারেশন চালাতে হলে এখানে আসতে হবে, দেখতে হবে, পরামর্শ দিতে হবে। অসুস্থতার কারণে সবকিছু সময় মতো না হওয়াটাই স্বাভাবিক। বাকি যে দু’জন জয়েন্ট সেক্রেটারি রয়েছেন তারা তো আর চিঠি চালাচালি করতে পারেন না। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যোগাযোগ করার মতো অভিজ্ঞতা বা জ্ঞান তাদের নেই। ড্রাফট করতে হলে সাদেক সাহেবকেই করতে হবে। সাদেক সাহেব যখন বুঝলেন তখন তো জরিমানা হয়েই গেছে। এখন উনাকেই উত্তরণের উপায় বের করতে হবে। জরিমানা দিবেন কি দিবেন না।’ নতুন একটি প্রতিযোগিতা আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছিল আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশন (এফআইএইচ)। কয়েকটি গ্রুপের হকি সিরিজ ওপেন নামে প্রতিযোগিতাটি হওয়ার কথা সেপ্টেম্বরে। তাতে বাংলাদেশের গ্রুপের খেলা হওয়ার কথা ছিল পাকিস্তানে। ২৩ জুলাই নির্বাহী কমিটির সভায় নির্ধারিত হয়ে থাকলেও সেখান থেকে সরে এসেছে ফেডারেশন। পাকিস্তান না যাওয়ার পেছনে দু’টি কারণ দেখাচ্ছে ফেডারেশন। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হতে যাওয়া টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে ওমান ও শ্রীলঙ্কা।


আরো সংবাদ