২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তুমি

প্রিয় অনুভূতি
-


‘ তুমি’ অদ্ভুত এক মায়ার নাম।
সারল্যে পূর্ণ মেয়েটি। হাসি নিষ্পাপ, শিশুদের মতো আচরণ, কণ্ঠ কান্নামাখা শান্ত, চোখে কৌতূহল। ওর সারল্য আমাকে মুগ্ধ করে। আমার ইচ্ছা করে ওকে আবির এনে দেই, বিকেলে রঙধনু দেখাই, পরিবেশের সবুজ সব পোশাক দেখাই। ইচ্ছা করে ওর পায়ে লুঠিয়ে পড়ি, ওর পুজো করি, একটু কাছে পাই। ইচ্ছা করে ভালোবাসি, সবটুকু ভালোবাসা দিয়ে ভালোবাসতে ইচ্ছে করে। ওর দিকে তাকিয়ে থাকতে ইচ্ছে করে। ওর হাসি দেখতে ইচ্ছে করে, ও কিভাবে হাটে দেখতে ইচ্ছে করে, ও কিভাবে দৌড়ায় দেখতে ইচ্ছা করে, ও দোকান থেকে কিভাবে চুলের কাঁকড়া কিনে দেখতে ইচ্ছা করে। শিক্ষকের প্রশ্নের উত্তর দিতে না পারলে কিভাবে ব্লাশ হয় দেখতে ইচ্ছা করে। ও কিভাবে ঝাল আচার খায় দেখতে ইচ্ছে করে, কোথাও যাওয়ার জন্য ও কিভাবে রিকশা ঠিক করে দেখতে ইচ্ছে করে। ও কিভাবে শাড়িতে সেফটিপিন লাগায় দেখতে ইচ্ছে করে। ও কিভাবে ওর আম্মুকে ঝারি দেয় দেখতে ইচ্ছা করে, বিয়ের আলাপ এলে কিভাবে বিয়ে না করার ঢঙ করে দেখতে ইচ্ছা করে। ওকে আমার সারাজীবন দেখতে ইচ্ছা করে, আমার ওকে ভালোবাসতে ইচ্ছা করে।
নৃবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

গুজব প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জ প্রিয়জনের র্যালি
প্রিয় সংবাদ
‘গুজবকে না বলি, আইন হাতে না তুলি’ এ সেøাগানে কিশোরগঞ্জে নয়া দিগন্তের পাঠক সংগঠন ‘প্রিয়জন সমাবেশ’-এর পক্ষ থেকে গুজব প্রতিরোধে সচেতনতামূলক র্যালি ও সভা করা হয়েছে।
রোববার দুপুর ১২টায় গুরুদয়াল সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণ থেকে র্যালি বের করা হয়। র্যালিটি শহরের বটতলা মোড় পার হয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, আদালত প্রাঙ্গণ হয়ে নরসুন্দা মুক্তমঞ্চে এসে সভায় মিলিত হয়। র্যালিতে কিশোরগঞ্জ শহরের বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থী, লেখক, সংস্কৃতিকর্মী ও আইনজীবী এসে যোগ দেন।
প্রিয়জন সমাবেশ কিশোরগঞ্জের আহ্বায়ক কল্পবিজ্ঞান লেখক ও কলামিস্ট আহমাদ ফরিদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন গুরুদয়াল সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাইফুজ্জামান সাইফ, নয়া দিগন্তের কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা মো: আল আমিন ও কিশোরগঞ্জ প্রিয়জনের সদস্যসচিব মুহা: জাহিদ জাবের।
প্রিয়জন সদস্যদের মধ্যে এ সময় উপস্থিত ছিলেন মো: সোহাগ, ফাহমিদা হক, স্বর্ণা আকন্দ, রিত্তিকা রিমি নিপা, ইফতেখার হোসেন ইমন, হৃদয় আহমেদ, জিসান রিয়াজ, এনামুল হক সাগর, রবিন আহমেদ, আজিজুল হক মুরাদ, প্রভাত, অপূর্ব আহমেদ, নাইমুর রহমান দুর্জয়, সুরমা, অনুপ কুমার হৃদয়, মো: আতিক উল্লাহ প্রমুখ।
সভায় জানানো হয়, পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে এটি একটি গুজব, আর এ গুজবে বিভ্রান্ত হওয়া যাবে না। কাউকে ছেলেধরা সন্দেহ হলে কোনো অবস্থাতেই আইন হাতে তুলে নেয়া যাবে না। গুজবে কান না দিয়ে সন্দেহভাজন ব্যক্তির সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশকে জানাতে হবে। গুজব থেকে জনগণকে সচেতন করতে এবং কোথাও ছেলেধরা সন্দেহ হলে প্রয়োজনে ৯৯৯ এ কল দিতে হবে।
মো: আল আমিন
কিশোরগঞ্জ প্রিয়জন


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat Paykasa buy Instagram likes Paykwik Hesaplı Krediler Hızlı Krediler paykwik bozdurma tubidy