১৬ জুলাই ২০১৯

প্রিয় অনুভূতি অবসান

-

আমরা প্রবাসী, আমাদের বাহিরটা সবাই দেখে কিন্তু ভেতরের আকুতিগুলো যেন শিশুর অব্যক্ত আধো কথার মতোই! এই দূর প্রবাসে মনের গভীরে এমনি একটা অবসানের অপেক্ষা! কিন্তু আমাদের এই অপেক্ষা যেন ফুরায় না। মনের ভেতরে সবসময় শুধু জানতে চাওয়া...
মা তুমি কেমন আছ? আর কেউ টের পাক বা না পাক, ও বাড়িতে আমার শূন্যতা তুমি হয়তো ঠিকই টের পাও। মাঝে মধ্যে আমার বুক গুমরে ওঠে । তোমার কোলে মাথা রেখে, কবে শান্তির এক ঘুম দেবো।
তোমার হাতে রান্না করা প্রিয় সেই খাবারগুলো, কবে আবার খেতে পারব। মোবাইল ফোনে কথা বলতে আর ভালো লাগে না। তোমার স্নেহময়ী মধু মুখ কবে আবার দেখতে পাবো! কবে আবার ছোট্ট গ্রাম, মাঠ-ঘাট, পুকুর পাড়, দিগন্ত থেকে দিগন্তে ছুটে চলা বাউলা সেই কিশোর হবো। প্রতিদিনের এই সংগ্রামী জীবন আমার ভালো লাগে না।
ঘামের বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে শরীরের প্রতিটি শিরা-উপশিরায়
যেন মিশে গেছে দুর্গন্ধ। অনাহারি কোশগুলোর মৃত্যু চিৎকার
আর স্বাধীন ইচ্ছেগুলোর পায়ে শিকল বেঁধে, রাতে-ভেজা বালিশে মুখ লুকাতে আমার আর ভালো লাগে না! কেবলি ক্ষণে ক্ষণে মনে হয়Ñ কবে ছুটি হবে। আর কতটা পথ পাড়ি দিলে পাবো অবসান।
সিঙ্গাপুর

 

 


আরো সংবাদ

এরশাদের পাশেই নিজের কবরের জায়গা চাইলেন রওশন শ্রীমঙ্গলে খাদ্য সংকটে লোকালয়ে অজগর হাজীদের দুর্ভোগ কমাচ্ছে ‘রোড টু মক্কা’ খাদ্য সংকটে লোকালয়ে অজগর শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষকের পুরস্কার পেলেন নয়া দিগন্তের সরাইল সংবাদদাতা এম এ করিম উল্লাপাড়ায় রেল দুর্ঘটনায় প্রাণহানীর ঘটনায় জামায়াতের শোক পণ্যে বাধ্যতামূলক পাটের মোড়ক আইন বাস্তবায়নের নির্দেশ ডিসিদের বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলায় মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ জাপা নেতা লোটন সিকদারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছে লেখিকা  কারাগারে হাজতির মৃত্যু, বিচারে দাবিতে বিক্ষোভ  রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রংপুরেই চির নিদ্রায় শায়িত হলেন এরশাদ

সকল




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi