film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

পালংয়ের ছয় পদ

-

বাজারে এখন তরতাজা পালং শাক উঠেছে। পালং শাকে আছে প্রচুর এন্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, কে, সি ও ই। এছাড়া রয়েছে আয়রন, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, জিঙ্ক, ফলিক এসিড, ম্যাঙ্গানিজ ও সেলেনিয়াম। বড়রা পালং শাক খেতে পছন্দ করলে শিশুদের বেশির ভাগই শাক খেতে চায় না। আজ থাকছে পালং শাকের ভিন্ন ধরনের ৬টি রেসিপি, যা বাসায় তৈরি করে খুব সহজেই শিশু ও বড়দের মন জয় করতে পারবেন।
রেসিপি দিয়েছেন তাসলিমা সুলতানা
পালং পনির

উপকরণ : ২০০ গ্রাম পালং শাক, ২টি টমেটো কুচি, আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি, ৪টি কাঁচামরিচ, ২ চা চামচ ধনে পাউডার, ২ চা চামচ আদা কুচি, ২ চা চামচ রসুন কুচি, ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়া, আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়া, আধা চা চামচ গরম মসলা গুঁড়া, ২০০ গ্রাম ছানা (কিউব করে কেটে নেয়া), ২ টেবিল চামচ তেল, ১ চা চামচ আস্ত জিরা, ২ টেবিল চামচ ক্রিম (দুধের সর ব্যবহার করলেও চলবে), লবণ স্বাদ মতো।
প্রণালী : পালং শাক ধুয়ে নিন। একটি সসপ্যানে পানি বলক এনে এতে পালং শাক দিয়ে ৩-৫ মিনিট সেদ্ধ করুন যতক্ষণ না পাতাগুলো নরম হয়ে যায়। পাতাগুলো নরম হয়ে এলে সাথে সাথে তুলে ঠাণ্ডা পানিতে ডুবিয়ে রাখুন। এতে করে পাতার রঙ সুন্দর থাকবে। এবার এই পাতাগুলো এবং কাঁচামরিচ ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করে নিন। একটি কড়াইতে তেল গরম করুন। এবার এতে আস্ত জিরা, আদা কুচি, রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন সুন্দর একটি গন্ধ ছড়ানো পর্যন্ত। এবার এতে পেঁয়াজ কুচি দিন। বাদামি রঙ হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। এবার এতে টমেটো কুচি দিন। সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার এতে লবণ, হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া ও ধনে গুঁড়া দিন। ভালোভাবে মেশান। নাড়তে থাকুন। এবার এতে পালং শাকের পেস্ট ও গরম মসলা দিন। ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। আধা কাপ পানি মেশান। ঘন হয়ে এলে এতে ছানার টুকরোগুলো দিন। কয়েক মিনিট রান্না করুন। এবার এতে ক্রিম বা দুধের সর মিশিয়ে নাড়ুন। নামিয়ে পরোটা বা ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।

 

পালং পরোটা

উপকরণ : ১ কাপ পালং শাক (ভাপিয়ে নেয়া), ২ কাপ আটা, ১ চা চামচ জিরা, ১ টেবিল চামচ কাঁচামরিচ মিহি কুচি, আধা কাপ পানি, লবণ স্বাদ মতো, তেল (ভাজার জন্য)।
প্রণালী : ভাপিয়ে নেয়া পালং শাক কুচি করে কেটে নিন। একটি পাত্রে আটা, লবণ ও জিরা একসাথে মিশিয়ে নিন। এবার এতে কাঁচামরিচ কুচি, পালং শাক কুচি মেশান। এবার অল্প অল্প করে পানি দিয়ে খামির তৈরি করে নিন। এবার পরোটার আকারে বেলে নিন। অল্প তেলে মাঝারি আঁচে দুই পাশ সোনালি করে ভেজে নিন।

পালং শাকের ভেজ কাবাব

উপকরণ : আলু ২টি (মাঝারি আকারের), ৩ কাপ পালং শাক, ১ কাপ মটরশুঁটি, ৩ টেবিল চামচ বেসন, পেঁয়াজ কুচি ৩ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ, ১ চা চামচ গরম মসলা গুঁড়া, ১ চা চামচ লেবুর রস, ১ চা চামচ চাট মসলা, ১ টেবিল চামচ তেল, লবণ স্বাদ মতো।
প্রণালী : আলু ও মটরশুঁটি একসাথে সেদ্ধ করে হাত দিয়ে চেপে মিহি পেস্ট তৈরি করে নিন, সাথে পরিমাণ মতো লবণ মেশান। পালং শাক ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে পানি বসান। পানি যখন ফুটে উঠবে তখন এতে পালং শাকের পাতাগুলো দিয়ে দিন। কয়েক মিনিট রাখুন। পাতাগুলো যখন সেদ্ধ হয়ে যাবে তখন তাড়াতাড়ি পানি থেকে তুলে পানি ঝরিয়ে কুচি করে কেটে নিন। অন্য একটি কড়াইতে মাঝারি আঁচে বেসনটুকু হালকা করে ভেজে নিন যতক্ষণ না সুন্দর একটি গন্ধ ছড়াচ্ছে। এবার বেসনটুকু আলু ও মটরশুঁটির পেস্টের মধ্যে দিন। এবার এতে একে একে গরম মসলা, চাটমসলা, লেবুর রস মেশান। সব শেষে পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচ কুচি মেশান। এবার কাবাবের মতো ছোট ছোট গোল আকার করে অল্প তেলে একে একে সব কাবাব দুই পাশ ভেজে তুলুন।

পালং শাক ও মুগডালের কারি

উপকরণ : আধা কাপ মুগডাল, ২ কাপ পালং শাক, দেড় কাপ পানি, আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ তেল, ১ চা চামচ জিরা, ২টি শুকনো মরিচ, ১ চা চামচ রসুন কুচি, ১টি টমেটো কুচি, সিকি চা চামচ হলুদ গুঁড়া, সিকি চা চামচ মরিচ গুঁড়া, ঘি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মতো।
প্রণালী : পালং শাক ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। মুগডাল আলাদাভাবে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি প্রেশার কুকারে পালং শাক ও মুগডাল, লবণ ও দেড় কাপ পানি দিন। ৪টি হুইসেল পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ৪টি হুইসেল বাজলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে ভালোভাবে ঘুঁটে নিন। এবার একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন। এতে রসুন কুচি, জিরা ও শুকনো মরিচ দিন। রসুন বাদামি রঙ হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। এবার পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালুন পেঁয়াজ নরম না হওয়া পর্যন্ত। এবার হলুদ ও মরিচ গুঁড়া দিন। ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। কিছুক্ষণ মৃদু আঁচে ভাজুন। এবার টমেটো দিন। টমেটো সেদ্ধ হওয়ার পর মুগডাল ও পালং শাকের মিশ্রণটি দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে কিছুক্ষণ চুলায় রাখুন। বলক এলে নামিয়ে উপরে ১ টেবিল চামচ ঘি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

স্পিনাচ স্ট্রবেরি বানানা স্মুদি

উপকরণ : পাকা কলা ২টি, ৮টি স্ট্রবেরি, ২টি ছোট কমলা (চাইলে কমলার পরিবর্তে ১ কাপ কমলার রসও ব্যবহার করা যেতে পারে), ৩ কাপ কচি পালং শাক (কচি পালং শাকে গন্ধ কম থাকে ও স্বাদ একটু মিষ্টি মিষ্টি হয় তাই অবশ্যই কচি পালং শাকই ব্যবহার করতে হবে), ১ কাপ পানি, আধা কাপ বরফ।
প্রণালী : কলা খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে নিন। পালং শাক ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। স্ট্রবেরি মাঝ বরাবর অর্ধেক করে কেটে নিন। কমলার খোসা ও বীজ ছাড়িয়ে নিন। একটি ব্লেন্ডারে পানি, কলা, কমলা ও পালং শাক দিন। এবার ব্লেন্ড করতে থাকুন যতক্ষণ পর্যন্ত সবকিছু ভালোভাবে ব্লেন্ড না হয়ে যায়। এবার বরফ দিয়ে পরিবেশন করুন।

স্পিনাচ পাস্তা

উপকরণ : ২ কাপ পেনে পাস্তা, পনির ১০০ গ্রাম, ৩টি টমেটো, আধা কাপ পানি, আধা চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়া, ২ কাপ পালং শাক, আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি, ১ চা চামচ রসুন কুচি, ১ টেবিল চামচ তেল, লবণ স্বাদমতো।
প্রণালী : পাস্তা আলাদা সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে নিন। টমেটো কুচি করে কেটে নিন। পালং শাক ধুয়ে পানি ঝরিয়ে কুচি করে নিন। একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন। এতে রসুন দিয়ে ভাজুন। এবার এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজুন যতক্ষণ না পেঁয়াজ নরম হয়ে আসে। এবার এতে টমেটো কুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন। টমেটো মোটামুটি সেদ্ধ হয়ে এলে এতে লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া ও আধা কাপ পানি দিয়ে বলক আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার এতে পনির দিয়ে নাড়ুন। পনির গলে গেলে পালং শাক কুচি দিয়ে মিশিয়ে নিন। পালং শাক সেদ্ধ হয়ে এলে এই মিশ্রণটির সাথে সেদ্ধ করে রাখা পাস্তা মিশিয়ে পরিবেশন করুন।


আরো সংবাদ

ধেয়ে আসছে লাখে লাখে পঙ্গপাল, ভয়াবহ আক্রমণের ঝুঁকিতে ভারত (১২২৯৮)এরদোগানের যে বক্তব্যে তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠল ভারত (১০৮১০)বিয়ে হল ৬ ভাই-বোনের, বাসর সাজালো নাতি-নাতনিরা (৮২৩০)জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশের নির্মম অত্যাচারের ভিডিও ফাঁস(ভিডিও) (৭২০১)কেউ ঝুঁকি নেবে কেউ ঘুমাবে তা হয় না : ইশরাক (৬৩৩৩)আ জ ম নাছির বাদ চট্টগ্রামে নৌকা পেলেন রেজাউল করিম (৫২৮৮)মাওলানা আবদুস সুবহানের জানাজায় লাখো মানুষের ঢল (৫১১৩)‘ইরানি হামলায় মার্কিন ঘাঁটির ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ নিজেরাই প্রকাশ করুন’ (৪৮০২)জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট দল ঘোষণা, বাদ মাহমুদউল্লাহ (৪৫৩০)মাঝরাতে ধর্ষণচেষ্টায় ৭০ বছরের বৃদ্ধের পুরুষাঙ্গ কাটল গৃহবধূ (৪৪৩৯)