২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মেন’স কেয়ার

রঙের ঝলক
-

আমরা একসময় মনে করতাম রূপচর্চা শুধুই মেয়েদের জন্য। আসলে কিন্তু তা নয়। রূপচর্চা ছেলেমেয়ে সবার জন্যই। কেননা নিজেকে সুন্দর আকর্ষণীয় করে তুলতে চায় সবাই। তার থেকেও বড় কথা ফ্রেশ থাকা। এটা নারী-পুরুষ সবার জন্য প্রয়োজন। সুন্দর ও পরিপাটি থাকাটাই মূল কথা। কিন্তু এর জন্য খুব বেশি দৌড়ঝাঁপেরও প্রয়োজন নেই। মেয়েদের পাশাপাশি এখন ছেলেদের জন্যও অনেক বিউটি টিপস রয়েছে। পুরুষদের রুক্ষ-শুষ্ক ত্বককে সুস্থ ও পরিষ্কার রাখার জন্য শুধু মুখ ধোয়া ও ময়েশ্চারাইজ করাই যথেষ্ট নয়। রুক্ষ-শুষ্ক ত্বক থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য বিভিন্ন স্কিন কেয়ার ফর্মুলা অনুসরণ করতে পারেন।
গরমের মওসুমে ছেলেদের ত্বকের যতœ নেয়ার প্রয়োজন হয় সব চেয়ে বেশি। কারণ গরমের সময়ে ছেলেদের বাইরে বেশি থাকতে হয়। তাই ত্বকের এই সমস্যাগুলো তাদের ক্ষেত্রেই বেশি হয়ে থাকে। গরমে ছেলেদের মুখের ত্বকে দেখা দেয় নানা সমস্যা। ব্রণ, অ্যালার্জি, গোটা থেকে শুরু করে চুলকানি। কখনো কখনো আমরা এর সঠিক কারণও খুঁজে পাই না। আর গরমের সময়ে যেহেতু ছেলেদের বাইরে বেশি থাকতে হয়, তাই ত্বকের এই সমস্যাগুলো তাদের ক্ষেত্রেও বেশি হয়ে থাকে। তবে একটু সতর্কতা আর ঘরোয়া টিপস পারে এই সমস্যার সমাধান দিতে।
ছেলেদের সারাদিন বাইরেই কাটাতে হয়, তাই ত্বকে ধুলাবালুও বেশি জমে। ত্বকের যতেœ কিছু সময় পরপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিলে ত্বক সজেত থাকে। এতে ত্বক যেমন ভালো থাকে, তেমনি আপনি থাকেন ফ্রেশ। ত্বক ভালো রাখতে হলে সপ্তাহে কমপক্ষে দুই থেকে তিন দিন মুখে স্ক্রাব করুন। সাইট্রিক এসিড, গ্লিসারিন অয়েল, ফ্রুট যুক্ত স্ক্রাবগুলো ছেলেদের স্কিনের জন্য অনেক ভালো। কারণ স্ক্রাব ত্বক থেকে ধুলা, অতিরিক্ত তেল দূর করে স্কিনকে পরিষ্কার করে তোলে আর ত্বককে করে প্রাণবন্ত। হেয়ারোবিক্সের রূপ পরামর্শক শাদীন মাহবুব বলেন, ‘স্ক্রাবের ভেতরের দানাদার উপাদান সহজেই মুখের ত্বকে থাকা মৃত কোষ সরিয়ে ত্বকে লাবণ্য ফিরিয়ে আনে। এ ছাড়া স্ক্রাবে থাকা তেল বা ক্রিম ত্বককে সতেজ করে তোলে। আমাদের ত্বকে প্রতিনিয়ত এক ধরনের তৈলাক্ততা তৈরি হয়, যা লোমকূপ দিয়ে বেরিয়ে সারা শরীরে ছড়িয়ে যায়। কোনো কারণে লোমকূপ বন্ধ হয়ে গেলে সেখানে ব্ল্যাক হেডস তৈরি হয়। স্ক্রাব ব্যবহারে ব্ল্যাক হেডস হওয়ার আশঙ্কা কমে।’ স্ক্রাব ব্যবহার করবেন, তবে প্রতিদিন না। এমনটাই জানালেন রূপ পরামর্শকেরা। শাদীন মাহবুবের মতে, সপ্তাহে দুই দিন মুখে স্ক্রাব করালেই ত্বক ভালো থাকবে। এ ছাড়া ভালোমতো স্ক্রাব করে নিলে শেভ করতেও বাড়তি সুবিধা পাওয়া যাবে। রাতে ঘুমানোর আগে ছোটখাটো ভাবে পরিচর্চা করে নিতে পারেন। এ জন্য ব্যবহার করতে পারেন আইস কিউব। সারা মুখে আইস কিউব ঘষে ঘুমিয়ে পরুন আর সকালে পান উজ্জ্বল ত্বক। এটি মূলত ত্বকের রক্ত চলাচল সচল করে ত্বকের রিলেক্সিং ভাব আনে। এ ছাড়া ময়েশ্চারাইজার ক্রিম লাগিয়ে আঙুল দিয়ে ঘষে ম্যাসাজও করে নিতে পারেন। এটিও একইভাবে কাজ করে।
ত্বকের পরিচর্চায় যুগ যুগ ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে লেবু। আর ছেলেদের ত্বক যেহেতু ড্রাই তাই আপনি এতে লেবু খুব সহজেই ব্যবহার করতে পারেন। লেবু কেটে খোসাসহ মুখে ভালোভাবে ঘষে নিলে তা ব্রণ থেকে শুরু করে অ্যালার্জিজনিত সমস্যা নিমিষেই দূর করে। লেবুর সাইট্রিক এসিড আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল, পিগমেন্টেশন, রোদে পোড়া দাগ দূর করতেও সাহায্য করে। একইভাবে এর ভিটামিন ‘সি’ মুখের কালো দাগ দূর করে ত্বককে আরো ফর্সা করতে সাহায্য করে।
গরমে আপনার ত্বকে দেখা দেয় কালচে আর রোদে পোড়া দাগ। এর জন্য প্রতিদিন বাসায় ফিরে মুখ ধোয়ার আগে শশার টুকরো দিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখ ঘষে পরিষ্কার করে নিতে পারেন। এটি ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার করে। এ ছাড়া শশার রস ত্বকে প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে। এক চামচ কাঁচা হলুদের সাথে কাঁচা দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে সম্পূর্ণ মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। কাঁচা হলুদ ত্বকের কোমলতা ধরে রাখে এবং কাঁচা দুধ স্কিনের কমপ্লেকশনকে আরো ফর্সা করতে সাহায্য করে। এ ছাড়া শুষ্ক ত্বকের জন্য মধু ব্যবহার করতে পারেন। এটি অনেক বেশি উপকারী ছেলেদের ত্বকের জন্য। আধা চামচ মধুর সাথে এক টুকরো লেবুর রস মিশিয়ে মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন। ইচ্ছে হলে এর পর ময়েশ্চারাইজার লাগাতে পারেন। আর দেখুন আপনি নিজেকে পাচ্ছেন সতেজ আর প্রাণবন্ত ত্বকের অধিকারী।
ছবি : পারসোনা মেনজ


আরো সংবাদ