২৬ আগস্ট ২০১৯

চুলের যতেœ অ্যাসেনশিয়াল অয়েল রূপ কথা

-

শীত গ্রীষ্ম বর্ষা যা-ই হোক, বছরজুড়ে সুন্দর চুলে চাই বাড়তি যতœ। চুল সুস্থ রাখতে তেলের বিকল্প নেই। আর তা যদি হয় প্রাকৃতিক নির্যাসের সংমিশ্রণে সমৃদ্ধ তেল তাহলে খুবই ভালো হয়। যুগ যুগ ধরে নারীর চুলের পরিচর্যায় তেল গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। প্রাকৃতিক নির্যাস থেকে তৈরি তেল অর্থাৎ অ্যাসেনশিয়াল অয়েল রূপচর্চার অন্যতম উপাদান। সাধারণ তেলের তুলনায় অ্যাসেনশিয়াল অয়েলে বেশি পরিমাণে পুষ্টিগুণ বিদ্যমান থাকে। চুলের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার জন্য ভিন্ন ভিন্ন অ্যাসেনশিয়াল অয়েল বেছে নিতে হবে। দুশ্চিন্তা ও অনিদ্রা দূর করতে ও চুলের যতেœ এই তেল প্রাচীনকাল থেকে প্রসিদ্ধ। চুল পড়া বন্ধ, চুলের গোড়া মজবুত ও নতুন চুল গজানো এমনকি স্কাল্পের ক্ষতিকর টক্সিন দূর করতেও অ্যাসেনশিয়াল অয়েল বেশ কার্যকরী।
ল্যাভেন্ডার অয়েল
শুষ্ক চুলের খুশকি দূর করতে এই তেল দারুণ উপকারী। ল্যাভেন্ডার অয়েল অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটর উপকারী দিকের জন্যও বেশি পরিচিত। যে কোনো তেলের সাথে কয়েক ফোঁটা ল্যাভন্ডার তেল মিশিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই তেল মাথার ত্বকে আর্দ্রতা আনে। তাই চুলও মসৃণ করে।
আমন্ড অয়েল
চুল পড়ার সমস্যা সমাধানে বিশেষভাবে উপকারী কাঠ বাদামের তেল। এই তেলে চুলের জন্য উপকারী সব ধরনের উপাদান রয়েছে। চুলে ডিপ কন্ডিশন করতে এর জুড়ি নেই। পরিমাণমতো অলিভ অয়েল, আমন্ড অয়েল এবং নারিকেল তেল একসাথে মিশিয়ে ব্যবহার করা যায়।
নারিকেল তেল
নারিকেল তেলের সাথে জবা ফুল একটি ধাতব পাত্রে নিয়ে ৩০ মিনিট চুলায় রেখে ঠাণ্ডা হলে এটি চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত ম্যাসাজ করুন ৫ মিনিট। এটি রাতে করুন। পরদিন সকালে চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন। চুল কালো করতে এটির জুড়ি নেই। হট অয়েল ম্যাসাজে নারিকেল তেলের ব্যবহার বেশ প্রচলিত। নারিকেল তেলের সাথে লেবু, আদার রস মিশিয়ে হালকা গরম অবস্থায় ব্যবহার করা যায়। এতে চুলের বৃদ্ধি ঘটে। নারিকেল তেলের সাথে কচি ঘাস ও কচি আমলকী একটি পাত্রে নিয়ে চুলায় রাখুন ৩০ মিনিট। তেল ঠাণ্ডা করে ছেঁকে রাখুন আপনার সুবিধামতো পাত্রে। এটি ব্যবহারে চুল পড়া রোধ হবে নতুন চুল গজাতে ও চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে।
তিলের তেল
অকালেই চুল পেকে যাওয়া এবং ধূসর চুলের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে তিলের তেল বেশ উপকারী। তিলের তেল চুল ঘন ও ঝলমলে করার পাশাপাশি অসময়ে চুল পেকে যাওয়ার ঝুঁকি কমায়। এই তেলের অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল উপাদান মাথার ত্বকের বিভিন্ন সংক্রমণের সমস্যা উপশমে সাহায্য করে। খুশকির সমস্যায়ও এটি বেশ ভালো কাজ করে। তিলের তেল হালকা গরম করে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ম্যাসাজ করুন ১০ মিনিট। ১ ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন।

 


আরো সংবাদ

আশুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের নতুন কমিটিকে অবৈধ বলছে পুরাতন কমিটি আড়াইহাজার উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার মাগুরায় মাহেন্দ্রকে পিকআপের ধাক্কা, নিহত ১, আহত ৪ স্কুলছাত্রদের চুল কাটলেন বিদ্যালয়ের সভাপতি, প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন কাশ্মির সংকট সমাধান না হলে অস্থিরতা বাড়বে ষষ্ঠ বারের মতো ঢাকা রেঞ্জে শ্রেষ্ঠ এসপি হারুন মাছধরা ট্রলারে জলদস্যুর হানা, দুই জেলেকে সাগরে নিক্ষেপ ঢাকায় ২০তম টেক্সটেক শুরু ৪ সেপ্টেম্বর গণপিটুনির শিকার ব্যক্তিদের বাঁচাতে সরকারের ব্যর্থতা প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলিতে ৩ জন নিহত আ’লীগের দিনের ভোট লাগে না, রাতেই ভোট পায় : রিজভী

সকল

যেভাবে গভীর রাতে জামালপুর ত্যাগ করলেন সেই ডিসি (১৮৩৩০)নারী কেলেঙ্কারীর দায়ে সেই জেলা প্রশাসকের ‘ইতিহাস সৃষ্টির মতো’ শাস্তি হচ্ছে (১৫৬৭৭)ইদলিবে মুখোমুখি অবস্থানে তুর্কি ও আসাদ সেনারা : পুতিনকে এরদোগানের জরুরি ফোন (১৫৪৭৮)প্লট চাওয়া নিয়ে যা বললেন রুমিন ফারহানা (১৪৮৯১)জামালপুরের ডিসির কেলেঙ্কারি তদন্তে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ (৯৫৯৩)‘দরকার হলে এদেশে আজীবন থাকবো’ (৮৮৩২)কাশ্মির নিয়ে ক্ষুব্ধ সরকারি কর্মকর্তার পদত্যাগ (৮৭৪৬)ডেঙ্গু রোগীর খাবার নিয়ে রমরমা বাণিজ্য (৮০৬২)কনে ‘কুমারি’ কি না শব্দ উঠিয়ে দেয়ার নির্দেশ (৭৬৬১)কাশ্মিরে উঠেছে ব্যারিকেড, রয়ে গেছে কাঁটাতারের বেড়া (৭২৮৪)



mp3 indir bedava internet