০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

স্কুলে যাবার পথে হয়রানি, জেএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

স্কুলে যাবার পথে হয়রানি,জেএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীর আত্মহত্যা - নয়া দিগন্ত

যৌন হয়রানীর লজ্জার থেকে বাঁচতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে জেএসসি পরীক্ষার্থী কারীমা আকতার। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের কামার পাড়া গ্রামে। কারীমা ওই গ্রামের কৃষক আবুল কালাম আজাদের মেয়ে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, কারীমা আকতার কিশোরীগঞ্জ বহুমুখি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের জিএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। সে স্কুলে যাওয়া আসার পথে একই গ্রামের আব্দুল জলিল মিয়ার ছেলে কাওছার (১৮) তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত এবং নানাভাবে তাকে উত্যক্ত করতো। ঘটনাটি কারীমা তার বাবা-মাকে জানায়। তার বাবা-মা ছেলের পরিবারকে জানলে ছেলের পরিবারের লোকজন ছেলেকে শাসন না করে উল্টো মেয়ের পরিবারের লোকজনকে অপদস্ত করে। এ ঘটনায় মেয়ের পরিবার গত শুক্রবার কাওছারকে ধরে এনে উত্তম মধ্যম দেয়।

ছেলের মা থানায় গিয়ে তার ছেলেকে আটকানোর অভিযোগ করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার আগেই কাওছার পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মেয়ের পরিবারকে নানা কটূক্তি করে হাসাহাসি করে ছেলের পরিবারের লোকজন। কারীমা নিজের আত্মসম্মান বাঁচাতে ও পরিবারের অপমান সহ্য না পেরে সোমবার সকাল ১০টার দিকে তার শয়ন ঘরে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।

পরিবারের লোকজন দেখতে পেয়ে গলার ফাঁস খুলে তাকে কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে এলে জরুরী বিভাগের ডাক্তার তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মফিজুল ইসলাম বলেন, মেডিকেল থেকে কারীমার লাশ নিয়ে আসা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী মর্গে পাঠানো হবে।


আরো সংবাদ

সকল




Paykwik Paykasa
Paykwik