২৪ মে ২০১৯

বিরামপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

-

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে নদীতে বালু খননকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা, শর্টগানের লাইসেন্স বাতিল ও চেয়ারম্যানসহ মামলার আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন।

রোববার বিকেলে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নবাবগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক দীলিপ কুমার ঘোষ। তিনি বলেন, নবাবগঞ্জ উপজেলার করতোয়া (মাইলা) নদী খনন কাজ স্থানীয় প্রশাসনকে না জানিয়ে ঠিকাদারের পক্ষ থেকে দায়িত্ব নেন চেয়ারম্যান ও তার ছেলে। এই কাজে অনিয়ম ও ব্যক্তিগত মালিকানাধীন কিছু জমি পড়ে যাওয়ার কারণে স্থানীয় জনগণ উপজেলা যুবলীগ নেতাদের মুঠোফোনে অবহিত করলে সেখানে তারা উপস্থিত হন। এবং ব্যক্তিগত জমির ব্যপারে সরকারের পক্ষ থেকে কোন অধিগ্রহণ করার নির্দেশনা আছে কিনা এ ব্যাপারে চেয়ারম্যানের ছেলে শফিউল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি জবাব দিতে অস্বীকৃতি জানান। এক পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে বাক-বিত-া হয়।

চেয়ারম্যান স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাদের যাওয়ার খবর পেয়ে দলবলসহ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে বাকবিত-া শুরু করেন। এক পর্যায়ে চেয়ারম্যান তার লাইসেন্স করা শর্টগান দিয়ে গুলি ছুড়তে থাকলে ঘটনাস্থলে যুবলীগের দুইকর্মী মাথা ও পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এসময় সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের বেশকিছু মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর নিরাপত্তার স্বার্থে চেয়ারম্যানের অস্ত্র জব্দ, নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এবং দলীয় সকল কর্মকা- থেকে অব্যাহতিসহ যথাযথ ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান মানিক, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শামসুজ্জামান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সাজেদুর রহমান, ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর ইসলামসহ জেলার বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদকর্মী প্রমুখ।


আরো সংবাদ

Instagram Web Viewer
agario agario - agario