২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সৈয়দপুরে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

-

নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের ওয়াপদা মোড় এলাকার সড়ক সম্প্রসারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

আজ রোববার সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত সৈয়দপুর-নীলফামারী সড়কের ওয়াপদা মোড়ে এ মানববন্ধন পালন করে।

এলাকার প্রবীণ ব্যক্তিত্ব ও চিকিৎসক ডা. আবুল হাসান বুলুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর হোসেন, এরশাদ হোসেন, রশিদুল ইসলাম, রুহুল ইসলাম, তসলিম প্রমুখ। এসময় ব্যবসায়ীরা ক্ষতিপূরণের জন্য বিভিন্ন দাবি উপস্থাপন করেন।

ব্যবসায়ীরা জানান, সৈয়দপুরের ওয়াপদা মোড় থেকে নীলফামারী শহরের চৌরঙ্গি মোড় পর্যন্ত প্রায় ১৯ কিলোমিটার সড়ক প্রসস্তকরণের জন্য সড়ক ও জনপদ বিভাগের উদ্যোগে জমি অধিগ্রহণসহ অবকাঠামো, গাছ, দোকানপাট, বিভিন্ন স্থাপনা অপসারণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ইতিপূর্বে এ জন্য জেলা প্রশাসকের এল এ শাখার উদ্যোগে সার্ভে কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এ সময় বলা হয় দোকানের জায়গা ও অবকাঠামোর ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে এবং এ টাকা থেকে দোকান বা জায়গার মালিক ও ব্যবসায়ীরাও ক্ষতিপূরণ পাবেন। সে অনুযায়ী জায়গা ও দোকান মালিকগণ ক্ষতিপূরণ বাবদ টাকা উত্তোলন করেছেন। কিন্তু ব্যবসায়ীরা বা দোকানদাররা তাদের দোকানের ডেকোরেশন বা মালামালের ক্ষতিসহ রাস্তা সংস্কার কাজ চলাকালের প্রায় ৩ থেকে ৪ মাস পর্যন্ত ব্যবসা বন্ধ থাকার কোনো প্রকার ক্ষতিপূরণ পায়নি। অথচ তারাই মূলত এ কাজে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত।

এদিকে জমির বা দোকানের মালিকেরা তাদের প্রাপ্ত ক্ষতিপূরণ থেকে দোকানদার ও ব্যবসায়ীদের কোনো অংশ ক্ষতিপূরণ বাবদ দিচ্ছেন না। এতে প্রায় ৩ হাজার ক্ষুদ্র দোকানদার ও ব্যবসায়ী দুর্দশায় পড়েছেন। একদিকে তাদের ব্যবসা বন্ধ হয়েছে, দোকানের মালামাল নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে তারা কোনো প্রকার ক্ষতিপূরণ না পেয়ে কর্মহীন অবস্থায় মানবেতন জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন। তাই তারা বেকারত্ব থেকে মুক্তির জন্য ব্যবসায়ীদের নিজস্ব ডেকোরেশন ভাঙ্গার, দৈনিক আয় বন্ধ হয়ে যাওয়ার ক্ষতিপূরণের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছে।

এসময় তারা আরো দাবি করেন যে, সার্ভেয়ার গোপনে অনেক জমির মালিকদের কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে টিনসেট দোকানকে সেমি পাকা দেখিয়েছে, আবার যারা টাকা দেয়নি তাদের সেমি পাকা দোকানকে টিনসেট দেখিয়েছে। একইভাবে ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ীদের নাম লিপিবদ্ধও করা হয়নি। এ বিষয় পুনঃতদন্তপূর্বক প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme