১৫ নভেম্বর ২০১৮

সৈয়দপুরে তেলবাহী ওয়াগন লাইনচ্যুত

-

জ্বালানি তেলবাহী তিনটি ওয়াগন (বিটিও) নীলফামারীর সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশনের কাছে লাইনচ্যুত হয়েছে। রেলের তেলবাহী ওয়াগন লাইনচ্যুত হয়ে পড়ায় আতংকিত হয়ে পড়ে সৈয়দপুর রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকাবাসী। রবিবার সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে রেলওয়ে কাছে। পার্বতীপুর থেকে একটি রিলিফ ট্রেন সকাল ১০টার দিকে সৈয়দপুরে এসে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। উদ্ধার কাজে সারাদিন লাগতে পারে বলে জানান উদ্ধারকারী ট্রেনের ইনচার্জ উর্ধ্বতন রেলওয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হাসান।
তেলবাহী ওয়াগন ড্রাইভার রফিকুল ইসলাম জানান, ২৩টি তেলবাহী ওয়াগন নিয়ে রোববার (১২ আগষ্ট) ভোররাতে খুলনা থেকে সৈয়দপুরে আসেন তিনি। ওয়াগনগুলি রেলওয়ে ষ্টেশন অতিক্রম করার পর তিনটি তেলবাহী ওয়াগন লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে। এসময় বিকট শব্দে রেললাইন সংলগ্ন বসবাসকারী ছুটাছুটি শুরু করে দেয়। কি কারণে লাইনচ্যুত হলো জানতে চাইতে তিনি বলেন, রেললাইনগুলি একে বারেই পুরাতন। সেই সাথে কাঠের স্লিপারগুলো খোয়ে গেছে। কেরোসিন, ডিজেল ও মবিলে ভরা ওয়াগানগুলো লাইনচ্যুত হয়ে পাল্টি খেলেই মহা বিপদ হতো বলে তিনি জানান। তবে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাওয়ায় তিনি আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সৈয়দপুর রেলওয়ে ষ্টেশনের সহকারী ষ্টেশন মাষ্টার টুটুল চন্দ্র সরকার জানায়, দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগের জুনিয়র ট্রাফিক পরিদর্শক আহসান হাবিবকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি সোমবারের মধ্যে (১৩ আগষ্ট) প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পর ট্রেন চলাচলে কোন বিঘœ ঘটছে না।


আরো সংবাদ