১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

রংপুরে স্কুলের ছাদ ধ্বসে ৫ শিক্ষার্থী আহত

ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার তৎপরতা চালায় - ছবি: নয়া দিগন্ত

রংপুর মহানগরীর মরিয়মনেছা উচ্চ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সোমবার দুপুরে স্কুলের ছাদ ধ্বসে ৫ জন ছাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্কুলের ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

নগরীর মুন্সিপাড়ায় অবস্থিত মরিয়ম নেছা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মাহমুদা আখতার মিলা জানান, বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে স্কুলের একাডেমিক ভবনে নবম শ্রেনীর শারীরিক শিক্ষা পরীক্ষা চলছিল। এমন সময় ছাদটি ধ্বসে আমাদের গায়ের ওপর পরে। তাড়াহুড়ো করে রুম থেকে বের হতে গিয়ে ৫ ছাত্রী আহত হয়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন গিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার তৎপরতা চালায়। গুরুতর আহত নবম শ্রেনীর ছাত্রী জেসমিন আখতার শাম্মী ও শাহানা আখতারকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মাথা থেতলে গেছে।

এদিকে ছাদ ধ্বসে যাওয়ার সাথে সাথে বিদ্যুতের লাইনও বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ফিরোজা বেগম লতা জানান, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতায় একাডেমিক ভবনটি ১৯৯৩ সালের ২০ আগস্ট নির্মাণ করে দেয়। কাজ নিম্নমানের হওয়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। আল্লাহর রহমতে অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন অনেক শিক্ষার্থী। তবুও দুই শিক্ষার্থীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। এর আগে ভবনটি রিপিয়ারিং করা হয়েছিল ।

রংপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক শামসুজ্জোহা বলেন, ভবনের ছাদের রডের ট্যাম্পার নষ্ট হয়ে যাওয়ার পরেও সেখানে সিমেন্ট দিয়ে মেরামত করা হয়েছিল। একারণে ছাদের প্রায় ৮০ থেকে ১০০ বর্গফুট আয়তনের অংশ ধ্বসে যায়।

 


আরো সংবাদ