১৬ অক্টোবর ২০১৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবকের কবজি কাটার অভিযোগে চেয়ারম্যানসহ আটক ২

রুবেলে দুই হাতের কবজি কেটে নেয়ার অভিযোগ ফয়েজ চেয়ারম্যানের লোকদের বিরুদ্ধে - ছবি : সংগৃহীত

চাঁপাইনবানগঞ্জের শিবগঞ্জে যুবকের দুই হাতের কবজি কেটে ফেলার অভিযোগে উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ফয়েজ আহম্মেদ (৩৫) ও তার এক সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ।

শিবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আতিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়ন থেকে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার সহযোগী তারেককে আটক করা হয়েছে। এর আগে দুপুরে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আলাউদ্দিন ও জাহাঙ্গীর নামে আরো দুজনকে আটক করে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে শিবগঞ্জ উপজেলার রানিহাটি বাজার এলাকার মৃত খোদাবক্সের ছেলে রুবেল (২৮) তার দুই বন্ধুকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় শিবগঞ্জ উপজেলার উজিরপুর বেড়িবাঁধের কাছে কয়েকজন তাদের পথরোধ করে চেয়ারম্যান ফয়েজের চেম্বারে গিয়ে দেখা করতে বলে। রুবেল তার বন্ধুদের নিয়ে চেম্বারে গেলে তার দুই বন্ধুকে ঘরে আটকে রাখা হয়। আর রুবেলের মুখ ও চোখ গামছা দিয়ে বেঁধে পদ্মা নদীর বাঁধের নিচে নিয়ে গিয়ে তার দুই হাতের কবজি কেটে নেয় ফয়েজ চেয়ারম্যানের সমর্থকরা। গুরুতর আহত রুবেল রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

রুবেলের স্বজনদের অভিযোগ, পূর্ব বিরোধের জের ধরে চেয়ারম্যান ফয়েজ ও তার লোকেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum