১৬ অক্টোবর ২০১৯

চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবকের ২ হাতের কবজি কেটে নিল প্রতিপক্ষ

বর্বরতার শিকার রুবেল হোসেন - ছবি : সংগৃহীত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন রুবেল হোসেন (২৮) নামে এক যুবকের দুই হাতের কবজি কেটে নিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

উপজেলার উজিরপুর এলাকায় বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত রুবেল হোসেন উপজেলার রানিহাটি বাজার এলাকার মৃত খোদাবক্সের ছেলে।

রুবেলের চাচাতো ভাই আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সালাম জানান, রাতে রুবেল তার দুই বন্ধুকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় উজিরপুর বেড়ি বাঁধের কাছে কয়েকজন তাদের পথ রোধ করে ও পাশেই উজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজের চেম্বারে গিয়ে দেখা করতে বলে। রুবেল তার বন্ধুদের নিয়ে সেখানে গেলে দুই বন্ধুকে ঘরে আটকে রেখে রুবেলের মুখ ও চোখ গামছা দিয়ে বেঁধে তাকে পদ্মা নদীর বাঁধের নিচে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে নির্যাতন করে দুই হাতের কবজি কেটে নেয় তারা। রাত ১টার দিকে খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

আব্দুস সালাম জানান, উজিরপুর এলাকায় পদ্মা নদীর একটি ফেরিঘাট নিয়ে চেয়ারম্যান ফয়েজের সাথে রুবেলদের দ্বন্দ্ব ছিল। পরে এ নিয়ে সমঝোতা হলেও ফেরি ঘাটটি পুরোটা নিজের নিয়ন্ত্রণে আনতে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আতিকুল ইসলাম জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি।

এদিকে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান ফয়েজের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum