film izle
esans aroma Umraniye evden eve nakliyat gebze evden eve nakliyat Ezhel Şarkıları indirEzhel mp3 indir, Ezhel albüm şarkı indir mobilhttps://guncelmp3indir.com Entrumpelung wien Installateur Notdienst Wien
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

মোবাইলে ৭ম শ্রেণির ছাত্রীর সাথে এক সন্তানের জনকের প্রেম, অতঃপর.....

গ্রেফতার অফিল উদ্দিন - নয়া দিগন্ত

বগুড়ার ধুনট উপজেলার এক স্কুল ছাত্রী প্রেমিকের হাত ধরে নিখোঁজ হওয়ার ৬ দিন পর জামালপুর উপজেলার এক চর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় অফিল উদ্দিন (২৫) নামের এক কথিত প্রেমিককে আটক করা হয়েছে।

এদিকে ওই স্কুল ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে। আটককৃত অফিল লালমনিরহাট জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার রুদ্রস্বর গ্রামের নাজির উদ্দিন ওরফে নজু শেখে ছেলে।

জানা যায়, ধুনট উপজেলার গোপালনগর ইউএকে উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর সাথে মোবাইল ফোনে রং-নাম্বারের মাধ্যমে অফিল উদ্দিনের পরিচয় হয়। ওই শিক্ষার্থী ধুনটের গোপালনগর ইউনিয়নের মহিশুরা গ্রামের বাসিন্দা। নিয়মিত ফোনালাপে অফিলের সঙ্গে ওই স্কুল ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চায় অফিল। প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে ১৩ বছর বয়সী ওই শিক্ষার্থী গত ১৬ অক্টোবর সকাল ১১টায় বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর সে বাড়ি না ফেরায় তার জনপ্রতিনিধি বাবা গত ১৮ আগস্ট ধুনট থানায় মেয়েকে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান ও ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালায়। প্রায় ৩০ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার  দুপুর সাড়ে ১২টায় জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার সাপধরী ইউনিয়নের চর দিঘাইল গ্রামের একটি টিনশেড ঘর থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এসময় পুলিশ কথিত প্রেমিক অফিল উদ্দিনকে আটক করেছে।

আটককৃত অফিল উদ্দিন জানায়, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিচয়ের সূত্রধরে ওই স্কুল ছাত্রীর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে গত ১৬ আগস্ট ওই ছাত্রী বগুড়া চারমাথা বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় তার সাথে দেখা করতে আসে। পরে প্রেমিকাকে সঙ্গে নিয়ে অফিল বগুড়া থেকে ট্রেনে বোনারপাড়ায় যায়। পরে প্রেমিকাকে নিয়ে নলছিয়া গ্রাম থেকে যমুনা নদী পার হয়ে চর দিঘাইল গ্রামে চাচাতো ভাই এর বাড়িতে আশ্রয় নেয় । অভিযোগ রয়েছে, স্বজনদের কাছে স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিয়ে আটকে রেখে কয়েক দিন যাবত ওই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে অফিল উদ্দিন। এক প্রশ্নের জবাবে অফিল উদ্দিন জানায়, ওই স্কুল ছাত্রীকে সে বিবাহ করেনি।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, অফিল উদ্দিন এক সন্তানের জনক। কিন্তু সে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে ওই ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরী করে। এরপর ওই ছাত্রীকে ফুঁসলিয়ে অপহরণ করে এবং আটকে রেখে ধর্ষণ করেছে। ওসি বলেন, উদ্ধারকৃত স্কুল ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা ও চিকিৎসার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আটক অফিল উদ্দিনের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


আরো সংবাদ

সকল