১৬ জুন ২০১৯

৭ম দিনের মতো বগুড়া জেলা বিএনপির কার্যালয়ে তালা

৭ম দিনের মতো বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক জিএম সিরাজের অপসারণ দাবীতে বিক্ষোভ - নয়া দিগন্ত

বিএনপি চেয়ারারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, নবগঠিত বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি বাতিল ও বহিস্কৃতদের দলে ফিরিয়ে নেয়ার দাবীতে ৭ম দিনের মতো তালাবদ্ধ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেছে নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় জেলা বিএনপির তৃণমূল নেতাকর্মী ব্যানারে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন। এ সময় তারা বক্তব্যে বলেন, যারা বিগত দিনের গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে মাঠে ছিল না তাদের নিয়ে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। দলের হাইকমান্ডকে ভুল বুঝিয়ে এক এগারোর সংস্থারপন্থী সাবেক এমপি জিএম সিরাজকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এ ছাড়া আরো অনেকে রয়েছেন যারা বিগত দিনের কর্মসূচিতে অংশ না নিয়ে এসি রুমে আরাম আয়েশ করেছেন। কিন্তু ত্যাগী ও পরীক্ষিতদের কমিটিতে রাখা হয়নি। তাই অবিলম্বে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করতে হবে। তারা আরো বলেন, খালেদা জিয়াকে সরকার ধুঁকে ধুঁকে মরতে চায়। তাই তাকে মুক্তি না দিয়ে জোর করে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। তাই তাকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। সেই সাথে তারেক রহমানের সকল মামলা ও সাজা প্রত্যাহার করতে হবে। সমাবেশ শেষে একটি মিছিল রাজপথ প্রদক্ষিণ শুরু করলে পুলিশ বাঁধা দেয়।
সমাবেশে বক্তব্য দেন বগুড়া পৌরসভার কাউন্সিলর পরিমল চন্দ্র দাস, দেলোয়ার হোসেন পশারী হিরু ও তৌহিদুল ইসলাম বিটু, সাবেক বিএনপি নেতা শাহ মেহেদী হাসান হিমু, শাহাবুল আলম পিপলু, আলী মুররাজি তরুণ, বেলাল হোসেন নান্নু, শফিকুল ইসলাম শফিক, সাবেক ছাত্রদলনেতা আবু জাফর জেম্স, রবিউল আউয়াল, স্বেচ্ছাসেবকদলের সাবেক নেতা জহুরুল ইসলাম পলাশ, আবু নূর মোঃ ওয়ালিদ, আতিকুর রহমান আতিক বুলবুল প্রমুখ।


আরো সংবাদ