২২ আগস্ট ২০১৯

কলেজ ছাত্রী অপহরণের দায়ে ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

রোববার দুপুরে ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন রিপনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। (ডানে) ছাত্রলীগ নেতা রিপন - নয়া দিগন্ত

বগুড়ার ধুনট উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন রিপনকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার বিকেল পৌনে ৪টায় শেরপুর শহরের ধুনট মোড় এলাকার টিভিএস শো-রুমের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃত ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন রিপন ধুনট পৌর এলাকার পশ্চিম ভরনশাহী গ্রামের মরহুম গোলাম হোসেনের ছেলে। সে প্রতিবেশী এক কলেজ ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী। ওই মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানামূলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, পশ্চিম ভরনশাহী গ্রামের মাসুদ করিম লিটুর কন্যা মোস্তাফিয়া মিমকে (২৩) প্রেমের প্রস্তাব দেয়াসহ বিভিন্ন ভাবে ছাত্রলীগ নেতা রিপন উত্যক্ত করে আসছিল। কিন্তু মিম তার প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় রিপন ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। গত বছরের জুন মাসে বগুড়া সরকারি মজিবুর রহমান মহিলা কলেজের অনার্স (ইংরেজী বিভাগ) শেষ বর্ষের ছাত্রী মিম ছুটিতে বাড়িতে চলে আসে।

খবর পেয়ে গত বছরের ৪ জুন (সোমবার) সন্ধ্যা ৭টায় ছাত্রলীগ নেতা রিপন ১০/১১জন লোক নিয়ে মাসুদ করিম লিটুর বাড়িতে প্রবেশ করে। পরে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে কলেজ ছাত্রী মোস্তাফিয়া মিমকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর পিতা মাসুদ করিম লিটু থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ৯ঘণ্টা পর সোনারগাঁ গ্রাম থেকে ওই কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় মাসুদ করিম লিটু বাদী হয়ে ধুনট থানায় ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন রিপনকে প্রধান আসামী করে ৪জন নামীয় ও অজ্ঞাত ৭/৮জনের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলার অপর আসামীদের মধ্যে পশ্চিম ভরনশাহী গ্রামের ইউসুফ হারুন সুলতানের ছেলে আব্দুল্লাহ হারুন বাবু, মুসলিম আকন্দের ছেলে জামাল উদ্দিন ও চালাপাড়া গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে ইউনুস আলী বর্তমানে জামিনে রয়েছে। কিন্তু অপহরণের ঘটনার পর থেকেই পুলিশের চোখে ‘পলাতক ছিল’ ছাত্রলীগ নেতা ইকবাল হোসেন রিপন। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল। ওই পরোয়ানামূলে রোববার বিকেল পৌনে ৪টায় শেরপুর শহরের ধুনট মোড় এলাকার টিভিএস শো-রুমের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম বলেন, ছাত্রলীগ নেতা রিপনের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় অপহরণ মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। সেই পরোয়ানামূলে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধুনট থানা পুলিশের কাছে তাকে সোপর্দ করা হবে।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, কলেজ ছাত্রী অপহরণ মামলার প্রধান আসামী ছাত্রলীগ নেতা রিপনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। সে দীর্ঘদিন যাবত পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে চলছিল। কৌশলে তাকে শেরপুরের ধুনট মোড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

বিদ্যুতের খুটিতে ঝুলছে লাইনম্যানের লাশ (৫৭৭৯৫)সীমান্তে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে ৬ ভারতীয় সেনা নিহত (৪০৭২৫)জঙ্গলে আলিঙ্গনরত পরকীয়া জুটির বজ্রপাতে মৃত্যু (৩৯৮৭৫)ভারতীয় গোয়েন্দা রিপোর্ট : বারুদের স্তূপে কাশ্মির, যেকোনো সময় বিস্ফোরণ (২৬৬৫০)কাশ্মির নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স (১৯১২২)বক্তব্যকে ভুলভাবে নেয়া : যা বললেন জাকির নায়েক (১৬০৫৩)মিয়ানমারে ভয়াবহ সংঘর্ষে ৩০ সেনা নিহত (১৫৮৪১)যেকোনো সময় গ্রেফতার হতে পারেন ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদম্বরম (১৫৪৭৯)কাশ্মির নিয়ে আবার মধ্যস্ততার প্রস্তাব ট্রাম্পের (১৩৩৯১)১২৮ বছর বয়সের বৃদ্ধের আকুতি : ‘বাবা আমাকে বাঁচাও, ওরা আমারে খেতে দেয় না’ (১২৮২৬)



mp3 indir bedava internet