২৪ মে ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন রোল মডেল : ভারতীয় হাইকমিশনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন রোল মডেল : ভারতীয় হাইকমিশনার - নয়া দিগন্ত

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত রীভা গাঙ্গুলি দাস বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন রোল মডেল। নারীকে নারী হিসেবে না ভেবে একজন মানুষ ভাবতে হবে। নারীরা আজ পুরুষের পাশাপাশি সমানভাবে কাজ করছেন। দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে হবে। নারীকে সম্মানের সাথে মাথা উচু করে দাঁড়াতে হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজলার সাংশৈল আদিবাসী স্কুল এন্ড কলেজের ‘গার্লস হোস্টল’র উদ্বোধন ও আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

ভারতের হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস আরো বলেন, গার্লস হোস্টেল উদ্বোধন করতে এসে মনে পড়ে যায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের কথা। বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক অটুট আছে ও অক্ষুণ্ণ থাকবে। শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য ভারত সরকার বৃত্তি প্রদান করে থাকে।

তিনি ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের এই সুযোগ নিতে হবে। পড়াশুনা করে নিজের ও পরিবারের ভাগ্য বদলাতে হবে। আমার বিশ্বাস তোমরা পারবে।

নিয়ামতপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়াজনে সাংশৈল আদিবাসী স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারিয়া পেরেরার সভাপতিত্বে এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চদ্র মজুমদার এমপি।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রীর বন্ধন ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযোদ্ধের সময় যেমন ছিল, এখনও আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযোদ্ধের সময় ভারত আমাদের ঘর-বাড়ি, সহায়-সম্বলহারা প্রায় এক কোটি বাঙ্গালীকে আশ্রয় দিয়ে, তাদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়ে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন, আমরা তা আজও মনে প্রাণে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি। তৎকালীন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী আমাদের শুধু আশ্রয় দেননি, বাংলাদেশকে স্বীকৃতি ও মুক্তিযুদ্ধে সৈন্য, অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করেছিলেন। সে সময় বাংলাদেশ-ভারত যে মৈত্রীর বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে, আজও তা অটুট রয়েছে এবং ভবিষ্যতেও অটুট থাকবে।

তিনি আরো বলেন, দুই দেশের বাণিজ্যিক সহায়তা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে নওগাঁ জেলার সাপাহার উপজেলায় যে স্থলবন্দরের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে তা বাস্তবায়ন করতে ভারত সরকার সহায়তা করবে বলে আশা করছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-৩ আসনর সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদার সলিম, রাজশাহী বিভাগের সহকারী ভারতীয় হাইকমিশনার সনজিত কুমার ভাটি, নওগাঁ জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান, পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

উল্লেখ্য, ভারত সরকারের অর্থায়নে নিয়ামতপুর উপজেলায় ‘নিয়ামতপুর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ এবং সাংশৈল আদিবাসী স্কুল এন্ড কলেজ এ দুইটি ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী গার্লস হোস্টেল ২ কোটি ৪১ লাখ ব্যায়ে নির্মাণ করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

Instagram Web Viewer
agario agario - agario