২২ আগস্ট ২০১৯

বিএনপি নেতা শাহীন হত্যার আগমুহূর্তের চাঞ্চল্যকর তথ্য

বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপি নেতা ও আইনজীবি মাহবুব আলম শাহীন হত্যায় আটককৃত দুই আসামী - নয়া দিগন্ত

বগুড়া জেলা বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক ও সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যাকান্ডের ঘটনায় চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে এসেছে। পাশাপাশি এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত দুই আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলো- বগুড়া শহরের নিশিন্দারা মধ্যপাড়ার মৃত কালুর ছেলে এজাহার নামীয় আসামী পায়েল শেখ (৩৮) ও সন্দেহভাজন আসামী নিশিন্দারা মন্ডল পাড়ার আবু তাহেরের ছেলে রাসেল (২৮)।

বৃহস্পতিবার বগুড়া জেলা পুলিশ সুপারের কনফারেন্স রুমে প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূইয়া এ তথ্য জানান।

উল্লেখ্য, গত ১৪ এপ্রিল রোববার বাংলা নববর্ষের রাতে বগুড়া উপশহর এলাকায় শাহীনকে ছুরিকাঘাত ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। হত্যার পর মঙ্গলবার বিকেলে নিহতের স্ত্রী আক্তার জাহান শিল্পী বাদী হয়ে জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে বগুড়া পুলিশ সুপার বলেন, জেলা মোটর মালিক গ্রুপের নেতৃত্ব নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এই দ্বন্দের জের ধরেই হত্যাকান্ডটি সংঘটিত হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীরা বলেন- গত ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যার পর মোটর মালিক গ্রুপের এক নেতার অফিসে গোপন বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে বিএনপি নেতা ও আইনজীবি অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী ১০ জনের একটি দল মোটরসাইকেল নিয়ে উপশহর কাঁচা বাজার এলাকায় এই হত্যাকান্ডে অংশগ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার ভোরে হত্যাকান্ডে জড়িত আসামী রাসেলকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর সেখান থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। তার দেয়া তথ্য মতে আরেক আসামী পায়েল শেখকে তার মেয়ের শ্বশুরবাড়ী গাবতলী উপজেলার কাগইল ইউনিযনের আমলিচুকাই গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

তাদের নিকট থেকে ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ জানা গেছে। গ্রেফতারকৃত দুজনের মধ্যে পায়েল ৯টি মামলার এজাহারনামীয় আসামী।

পুলিশ সুপার আরো জানান, অধিকতর তদন্তের স্বার্থে আসামীদের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে। অপর আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরো পড়ুন : শাহীন হত্যার বিচার দাবিতে বিএনপির মানববন্ধন
বগুড়া অফিস, (১৭ এপ্রিল ২০১৯)

বগুড়া জেলা বিএনপির প্রশিক্ষণ সম্পাদক, সদর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও বিশিষ্ট পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনের হত্যাকারীরা গত তিনদিনেও গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে বিএনপি। তারা বলেছেন, প্রশাসন গ্রেফতার না করলে বগুড়াবাসী তাদের রাজপথে বিচারের ব্যবস্থা করবে।

এদিকে হত্যাকান্ডে জড়িত আসামীদের গ্রেফতার করে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে জেলা বিএনপি। ৫ দিনব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত শহরের স্টেশন রোডস্থ বগুড়া প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচীতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপি নেতা শাহীন স্বচ্ছ রাজনীতিবিদ ছিলেন। তাকে কেন হতা করা হলো। প্রশাসন জানলেও অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করছে না। তাদের গ্রেফতার করা না হলে রাজপথে খুনীদের বিচারের ব্যবস্থা করা হবে।


আরো সংবাদ

৭৫-এর পরিকল্পনাকারীদের বিচারে জাতীয় কমিশন গঠনের দাবি রাজধানীতে জেএমবির চার সদস্য গ্রেফতার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারে ফিরে না গেলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানো হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদ সচিবালয়ের আবাসন সমস্যা দূর করতে আরো ৫০০ ফ্যাট কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদে ভেলায় সবজি চাষ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা খাতে বিনিয়োগ করার আহ্বান অবশেষে রোহিঙ্গারা ফিরছেন আজ থেকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি আরো অবনতির আশঙ্কা ১৫ আগস্ট আর ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ড একই সূত্রে গাঁথা : কাদের কাশ্মির নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে যাবে পাকিস্তান

সকল




mp3 indir bedava internet