২০ মে ২০১৯

সিংড়ায় শিলাবৃষ্টিতে হাঁসের খামারসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

-

নাটোরের সিংড়ার চলনবিলের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আকস্মিক ঝড় ও শিলাবৃষ্টির আঘাতে কাঁচা ও টিনসেড ঘর-বাড়ি এবং বোরো ধান, ভুট্টা, করলা, পিঁয়াজ, আমসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

আজ রোববার ভোর ৫টায় প্রায় আধা ঘন্টা ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে এ বিপর্যয় ঘটেছে।

স্থানীয় কৃষি অফিস ও কৃষক সূত্রে জানা যায়, রোববার ভোর রাতে সিংড়া উপজেলার তাজপুর, কলম, শেরকোল, চৌগ্রাম, লালোর ৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আকস্মিক ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে কিছু কাঁচা ও টিনসেড ঘর আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়াও কাঁচা বোরো ধান, ভুট্টা, করলা, পিঁয়াজ, আমসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন চলনবিলের ভাম্যমান হাঁস খামারিরা।

তাজপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য জাকারিয়া হোসেন বলেন, তাজপুর ইউনিয়নের হরিপুর, হিয়াতপুর, মাহমুদপুরসহ ৭টি গ্রামের প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর অত্র অঞ্চলের কাঁচা বোরো ধান, ভুট্টা ও করলাচাষীদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

পৌর শহরের নিংগইন গ্রামের হাঁস খামারি রাজিয়া বেগম ও সাহাব উদ্দিন বলেন, ভোর রাতে আকস্মিক ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে তাদের দুটি হাঁসের খামারে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে তারা সরকারের আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সিংড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আল-আমিন জানান, আকস্মিক ঝড়ে তাজপুর, শেরকোল, লালোর ও ইটালী ইউনিয়নের কিছু এলাকায় কাঁচা ও টিনসেড ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার খবর পেয়েছি। ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রণয়নের কাজ চলছে।

সিংড়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার শারমিন সুলতানা বলেন, ঝড় ও শিলা-বৃষ্টিতে উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার কিছু এলাকায় কাঁচা বোরো ধান, ভুট্টা, করলা, পিঁয়াজ, আম ফসলের ক্ষতি হয়েছে। তবে ধানের ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা সম্ভব বলে তিনি জানান।


আরো সংবাদ