২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

হাতি নিয়ে চাঁদাবাজি!

-

নাটোরের সিংড়া-বারুহাস-তাড়াশ দুবন্ত সড়ক এলাকায় হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি করছে প্রতারকরা। যে কারণে সড়কে বৃদ্ধি পেয়েছে যানজন। বিড়ম্বনায় পড়েছেন সিংড়ার চলনবিলে ভ্রমন পিপাসু পর্যটক ও সাধারণ মানুষেরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় সরোজমিনে গিয়ে হাতি দিয়ে এমন চাঁদাবাজির দৃশ্য চোখে পড়ে। বগুড়ার মহাস্থান ও আত্রাই এলাকা থেকে আসা পৃথক দুটি হাতি চলনবিলে বেড়াতে আসা পর্যটক, পথচারী ও যানবাহনের পথ আটকে দিচ্ছে। তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করা পর অন্য যানবাহন কিংবা পথচারীদের দিকে শুঁড় উচিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। এতে অনেক পর্যটকরা ভয়ে আতকে উঠছে।
চলনবিলে বেড়াতে আসা মৌসুমী আক্তার বলেন, তিনি হাতিকে টাকা দিতে বাধ্য হয়েছেন। কারণ হাতি শুঁড় উচিয়ে তার পথ আটকে দিয়েছে। কেউ টাকা না দিলে হাতি মানুষকে ছাড়ছে না। টাকা পেলেই হাতি তার পিঠের ওপর বসে থাকা মাহুতকে শুঁড় উচিয়ে টাকা দিয়ে দিচ্ছে।
স্থানীয় ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান বাবু, আবু বক্কর বলেন, হাতির পিঠে বসে থাকা মাহুতের ইশারায় হঠাৎ হাতি এসে যানবাহনে থাকা যাত্রীদের শুঁড় দিয়ে চেপে ধরছে। এতে অনেকেই ভয়ে টাকা দিতে বাধ্য হচ্ছে। যাতে হাতি তাড়াতাড়ি তাকে ছেড়ে দেয়।
হাতির পিঠে বসা মাহুত রানা আহমেদ ও মিঠুন বলেন, তারা সামান্য মাত্র সাহায্য তুলছেন। কোন চাঁদাবাজি বা কাউকেও ভয় দেখানোর জন্য তারা হাতি নিয়ে আসেননি।
সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়েছি দুটি হাতি চলনবিলের রাস্তায় টাকা তুলছে। তাদেরকে সর্তক করা হয়েছে। আর যেন কোন হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি না হয়। আবার অনেকেই হাতি দেখে আনন্দও পাচ্ছে বলে জানান তিনি।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme