২২ জুলাই ২০১৮

সাঁথিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যুবক খুন

-

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলাধীন আতাইকুলা থানায় চরমপন্থীদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আঃ মমিন (২৬) নামে এক যুবক খুন হয়েছে। সে সাঁথিয়া উপজেলার বিলসলঙ্গী গ্রামের মৃত জানে আলম জানুর ছেলে। মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে থানার মাছিয়াঘাটা বিল থেকে গলায় গামছা দিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পারিবারিক সূত্রের বরাত দিয়ে আতাইকুলা থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, নিহত আঃ মমিন তার চাচাতো ভাইকে সঙ্গে নিয়ে গত সোমবার সন্ধ্যায় মাছিয়াঘাটা নিজ জমি দেখতে যান। এসময় দুষ্কৃতকারীরা মমিনকে ধরলে চাচাতো ভাই কৌশলে পালিয়ে আসে। বাড়ী এসে ঘটনা পরিবারকে জানালে তারা খোজাখুঁজি করতে থাকে। মমিনকে না পেয়ে মঙ্গলবার বিষয়টি আতাইকুলা থানা পুলিশকে জানানো হয়। আতাইকুলা থানার ওসির নেতৃত্বে ওই এলাকায় বিভিন্ন জায়গায় খুজাখুজির এক পর্যায়ে মাছিয়াঘাটা বিলের পানির মধ্য হতে দু হাত পিছনে দিয়ে বাধা ও গলায় গামছা পেচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা লাশ উদ্ধার করে। রাতের কোন এক সময় তাকে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা।

ওসি মাসুদ রানা আরো জানান, নিহত মমিনের পিতা জানে আলম জানু চরমপন্থী দলের সদস্য থাকায় খুন হয়েছিল। মমিনও চরমপন্থী দলের সক্রিয় সদস্য। তিনি দীর্ঘ দিন পলাতক ছিলেন। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরো সংবাদ