১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

আবরার হত্যার প্রতিবাদে ঢাবিতে ছাত্রদলের মৌন মিছিল

আবরার হত্যার প্রতিবাদে ঢাবিতে ছাত্রদলের মৌন মিছিল - ছবি : নয়া দিগন্ত

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পা‌সে মৌন মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল।

মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সামনে থেকে শুরু হয়ে কলাভবন এবং টিএসসি ঘুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলা ভাস্কর্যের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিলে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা মুখে কালো ব্যাজ ধারণ ক‌রে আবরার হত্যার প্রতিবাদ জানান।

মিছিল শেষে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে ছাত্রদল। সেখানে ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, যারা আসামি তারা অনেকেই এখনো গ্রেফতার হয়নি। এর মধ্যে অমিত সাহা একজন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিরাপদে থাকবে, শান্তিতে পড়াশোনা করবে এবং তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাবে। কিন্তু আমরা দেখলাম আবরারকে যেভাবে হত্যা করা হলো, তাতেই বোঝা যায় বাংলাদেশের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক পরিস্থিতি নেই।

যতক্ষণ পর্যন্ত না বুয়েটের ভিসি পদত্যাগ করবেন, যতক্ষণ পর্যন্ত না এ হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার হবে, ততক্ষণ আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব, বলেন তিনি।

ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, বাংলাদে‌শে বিচারহীনতার সংস্কৃতি চলছে দীর্ঘদিন ধরে। সরকারের চুক্তিবিরোধী স্ট্যাটাস দেয়ার কারণে জীবন দিতে হয়েছে আবরারকে। কিন্তু আমরা পিছপা হব না। আমাদের এক ভাই যাবে হাজার ভাই সামনে আসবে। এদেশ আমার, এদেশ আমাদের। দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা সর্বদা সচেষ্ট থাকব।

তিনি আরো বলেন, অতীতে ছাত্রলীগের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস থাকলেও বর্তমান সময়ে তারা দানবীয় রূপ লাভ করেছে, তারা অশরীরী শক্তিতে রূপান্তরিত হয়েছে। খুব শিগগিরই সরকারদলীয় দানবীয় সংগঠন ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে আমরা আরো জোরালো আন্দোলন নিয়ে মাঠে নামব।

শ্যামল বলেন, সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রশাসন ও ভিসি স্যারকে আমরা অভিযোগ করে এসেছি। সরকার এবং সরকারের অনুসারীরা কর্ণপাত করছে না। অতীতে আমাদের ওপর হামলা হয়েছে কিন্তু এর বিচার পাইনি। ছাত্র রাজনীতির জন্য তীর্থস্থান মধুর ক্যান্টিন। সেখানে আমাদের জন্য কোনো টেবিল রাখা হয় না। আমরা এর আগেও এর প্রতিবাদ স্বরূপ মেঝেতে অবস্থান নিয়েছি। অথচ যেখানে সকল ছাত্র সংগঠনের জন্য নির্ধারিত টেবিল রাখা হয়। কিন্তু ছাত্রদ‌লের জন্য কেন রাখা হ‌বে না?


আরো সংবাদ

বিজয়ের স্বপ্ন পূরণে সমৃদ্ধ আগামীর পথে অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে : শিবির সভাপতি সোহরাওয়া‌র্দি‌তে ফি‌রে এ‌লো সেই ঐতিহা‌সিক বিজয় মুহূর্ত আমতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ অশান্ত পশ্চিমবঙ্গ, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত ৮ কোম্পানি বাহিনী যত জোরে সম্ভব তত জোরে পিটিয়েছি : হেটমায়ার ধামরাইয়ে মহান বিজয় দিবস পালিত, মুক্তিযোদ্ধাদের সংর্বধনা মঞ্চে বসার চেয়ার না পাওয়ায় বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান বয়কট আ’লীগ সভাপতির সরকার ফেলে দিলেও মাথা নোয়াব না : মমতা ‘সেঞ্চুরি না করলে তো দল থেকে বাদ দিয়ে দেবে’ উপজেলা চেয়ারম্যানের বাবা স্বাধীনতা বিরোধী, অনুষ্ঠান বর্জন আ’লীগের একাংশের সর্বক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা মোদির

সকল




hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik