১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

সরকার দোদুল্যমান অবস্থায় : খন্দকার মাহবুব

প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে খন্দকার মাহবুব - ছবি : নয়া দিগন্ত

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, ‘ক্ষমতাসীন অবৈধ সরকারকে ভয় করার কিছু নাই, তাদের পায়ের নিচে মাটি নাই। তারা দোদুল্যমান অবস্থায় আছে। যেকোনো মুহূর্তে তাদের ধাক্কা দিলেই পতন হবে।’

আজ শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম নামক একটি সংগঠনের আয়োজনে ‘প্রতিহিংসার বিচারে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অনতিবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে’ প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, প্রিন্সিপাল শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক, তাঁতী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ বক্তব্য দেন।

খন্দকার মাহাবুব বলেন, ‘এই সরকার অবৈধ। পাতানো নির্বাচনের মাধ্যমে তারা ক্ষমতায় এসেছে। তাদের উচিত নিরপেক্ষ সরকারের মাধ্যমে নির্বাচন করা।’

তিনি বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে নাকি অপরাধীদের তালিকা আছে। তালিকা রেখে লাভ নাই। আমরা দেখতে চাই কারা সেই অপরাধী। তাদেরকে গ্রেফতার করে বিচারের কাঠগড়ায় নিয়ে আসতে হবে। আপনি বারবার ভালো ভালো কথা বলবেন আর চমক সৃষ্টি করবেন সেই চমক সৃষ্টির দিন চলে গেছে।’

সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র এই আইনজীবী বলেন, ‘আমরা অনেক দেখেছি, আমাদের ধৈর্যচ্যুত হয়ে গেছে। এখনো সময় আছে আপনি পদত্যাগ করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিন। হাইকোর্ট নিয়ে খেলতে যাবেন না। বিচার বিভাগকে নিয়ে খেলতে যাবেন না। বিচারকরাও আপনার খেলার সঙ্গি আর হবে না। আল্লাহর নামে শপথ নিয়ে বলছি, আর কোনোদিন করুণা ভিক্ষা করবো না। হাইকোর্টের বিচার যদি থাকে, সংবিধান অনুযায়ী বিচার যদি করতে পারে তাহলে হাইকোর্টের অস্তিত্ব থাকবে। নতুবা অস্তিত্ব থাকবে কিনা সেটা নিয়ে আমরা সন্দিহান।’

বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘সংবিধানে হাইকোর্টকে যে অধিকার দেয়া হয়েছে সেখানে যদি আইনের শাসন না থাকে তাহলে সেই হাইকোর্ট থাকার অস্তিত্ব নাই। আমরা শপথ নিয়ে এসেছি বাংলাদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করব। আমি হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টের মাননীয় বিচারপতিদেরকে সতর্ক করে দিয়ে বলতে চাই, দেশে আইনের শাসন যদি না থাকে তাহলে আপনাদেরও শাসন থাকবে না, আপনাদের অস্তিত্ব থাকবে না।’


আরো সংবাদ

দৃশ্যমান হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামের (২২০৭১)মাংস রান্নার গন্ধ পেয়ে বাঘের হানা, জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে জ্যান্ত খেল নারীকে (২০৯৩০)ব্রিটেনের প্রথম হিজাব পরিহিতা এমপি বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত আপসানা (১৫৪৬৮)ব্রিটেনে বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তানের যারা নির্বাচিত হলেন (১৪৪৪৫)ইসরাইলি জাহাজকে ধাওয়া তুর্কি নৌবাহিনীর (১৩৯২৭)চিকিৎসার নামে নারীর গোপনাঙ্গে হাত দিতেন ভারতীয় এই চিকিৎসক (১২৫২৯)৪ বোনের জন্ম-বিয়ে একই দিনে! (১০৯৩৯)বিক্ষোভের আগুন আসামে এতটা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ছড়াবে, ভাবেননি অমিত শাহেরা (১০৮৩৪)কোন রীতিতে বিয়ে করলেন সৃজিত-মিথিলা? (১০১৬৬)নির্দেশনার অপেক্ষায় বিএনপির তৃণমূল (৯৮৩৯)



hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik