২২ জানুয়ারি ২০২০

ছাত্রলীগের চাঁদাবাজীর খবর টক অব দ্য কান্ট্রি : রিজভী

গণতন্ত্র দিবসে বিএনপির মিছিল - ছবি : নয়া দিগন্ত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের চাঁদাবাজীর খবর এখন টক অব দ্য কান্ট্রি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, এই সরকার হাজার হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি করছে, লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে। তাদের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ৮৬ কোটি টাকা দুর্নীতির কারণে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ হাজার ৪৪৫ কোটি টাকার ক্যাম্পাস উন্নয়ন প্রকল্পের ৪ থেকে ৬ শতাংশ চাঁদা দাবি করেছিলেন ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। এই চাঁদাকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন ‘ঈদের খরচ হিসেবে ন্যায্য পাওনা’। এই চাঁদা দাবিকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি এবং ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের তর্কবিতর্ক এখন ‘টক অব দ্য কান্ট্রি’।

ছাত্রলীগের এই বিশাল চাঁদাবাজীর খবর জনগণের চোখ থেকে দূরে সরানোর জন্য ছাত্রদলের কাউন্সিল আদালতকে দিয়ে বাধা দেয়া হয়েছে। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কাউন্সিলের ওপর নিষেধাজ্ঞায় আদালতের সুবিচারিক মন প্রয়োগ করা হয়নি। এটি গণতন্ত্রের ওপর মরণ আঘাত।

আজ রোববার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। মিছিলে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। মিছিলটি নয়াপল্টন বিএনপি কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস। বিশ্ব ও বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে আজকের দিনটি তাৎপর্য অতীব গুরুত্বপূর্ণ। অনেক দেশে গণতন্ত্র যখন সঙ্কটাপন্ন তখন বাংলাদেশেও বর্তমান অবৈধ সরকারের ছোবলে গণতন্ত্র মরণদশায়।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, শেয়ার বাজার, রিজার্ভ, ব্যাংক, বালিশ, পর্দার কথা তো সকলের জানাই। এসবের বিরুদ্ধে কোন ব্যাবস্থা না নিয়ে কেবল রাজনৈতিক কারণে, ব্যক্তিগত প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য বেগম জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, জনগণের কল্যাণ নয়, বরং লুটের রাজত্ব কায়েম রাখতেই বর্তমান মিডনাইট নির্বাচনের অবৈধ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতার জোরে ‘গণতন্ত্রের মা’ জনগণের প্রাণপ্রিয় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রেখেছেন। এই সরকার যে ভোট চুরির মাধ্যমে ক্ষমতা জবরদখল করেছে তা শুধু দেশবাসী নয়, গোটা বিশ্ববাসীও জানে। মধ্যরাতের ভোটের সরকার বলেই বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারকে কবর দিয়ে বিএনপিসহ সকল বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে একদলীয় বাকশালী শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে। কণ্ঠরুদ্ধ মানুষ দীর্ঘশ্বাস চেপে রেখেছে। গণতান্ত্রিক সকল প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে গণতন্ত্রকে হত্যা করে বর্তমান স্বৈরাচারী শাসকগোষ্ঠী আদালতকে কসাইয়ের ছুরি হিসেবে ব্যবহার করছে।

সরকারের একদলীয় শাসন কায়েম করার স্বপ্ন পূরণ হবে না মন্তব্য করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, গণতন্ত্রের কবর রচনা করে একদলীয় বাকশালী শাসন কায়েম রাখার যে স্বপ্ন ভোটারবিহীন সরকার দেখছে তা জনগণ কোনোদিনই পূরণ হতে দেবে না। দেশের আপামর জনগণের আস্থাভাজন নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করে মানুষের মৌলিক মানবাধিকার ও গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে জাতীয়তাবাদী শক্তি দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ। এসময় তিনি অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এর নেতৃত্বে মিছিল শুরু হলে মিছিলে অংশগ্রহণকারী নেতাকর্মীরা আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে শ্লোগান দেন।

এসময় মিছিলে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, ছাত্রদলের সভাপতি প্রার্থী ফজলুল রহমান খোকন, হাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শাহ নেওয়াজ, আমিনুর রহমানসহ দুই শতাধিক নেতাকর্মী।


আরো সংবাদ

শ্রীপুরে নামের সাথে মিল করাতকলের মালিকের পরিবর্তে জেল খাটছেন চাবিক্রেতা সন্তুষ্টি যে অন্তত বিচার শেষ হয়েছে : আইনমন্ত্রী ডিএনসিসি উদ্দেশ্যমূলক মশক নিয়ন্ত্রণ বিজ্ঞাপন প্রচার করছে : ইসলামী আন্দোলন স্যার ফজলে হাসান আবেদ জনকল্যাণের রোল মডেল : হোসেন জিল্লুর স্পিকারের সাথে নেপালের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ রাজধানীতে বন্ধুর বাসা থেকে বান্ধবীর লাশ উদ্ধার আর্থ-সামাজিকভাবে বাংলাদেশকে আরো উন্নত দেখতে চাই ভারতের রাষ্ট্রপতি শিল্পলবণ আমদানির নামে ভোজ্যলবণ আমদানি করা যাবে না : শিল্পমন্ত্রী ভিকারুননিসায় আসনের অতিরিক্ত ভর্তি কেন অবৈধ নয় চট্টগ্রামের আ’লীগ নেতা এজাজ চৌধুরীকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ খিলক্ষেতে র্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে যুবক নিহত

সকল

নীলফামারীতে আজ আজহারীর মাহফিল, ১০ লক্ষাধিক লোকের উপস্থিতির টার্গেট (১৬৫০১)ইসরাইলের হুমকি তালিকায় তুরস্ক (১৪৪৩৭)বিজেপি প্রার্থীকে হারিয়ে মহীশূরের মেয়র হলেন মুসলিম নারী (১৩৭৯৮)আতিকুলের বিরুদ্ধে ৭২ ঘণ্টায় ব্যবস্থার নির্দেশ (৮৩৩৩)জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে তাবিথের প্রচারণায় হামলা (৮০৯০)মসজিদে মাইক ব্যবহারের অনুমতি দিল না ভারতের আদালত (৫৮৭৫)মৃত ঘোষণার পর মা কোলে নিতেই নড়ে উঠল সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশুটি (৫৭৭৪)তাবিথের ওপর হামলা : প্রশ্ন তুললেন তথ্যমন্ত্রী (৫৪৪১)দ্বিতীয় স্ত্রী তালাক দিয়ে ফিরলেন স্বামী, দুধে গোসল দিয়ে বরণ করলেন প্রথমজন (৫৩৯৭)ইশরাককে ফুল দিয়ে বরণ করে নিলো ডেমরাবাসী (৪৬৪২)



unblocked barbie games play